ঢাকা, বুধবার, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৯ মে ২০২৪, ২০ জিলকদ ১৪৪৫

ক্রিকেট

গরমের কারণে এসি-ফ্যান ঠিকঠাক চেয়েছে ক্লাবগুলো

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ২০, ২০২৪
গরমের কারণে এসি-ফ্যান ঠিকঠাক চেয়েছে ক্লাবগুলো

তীব্র তাপদাহে দেশজুড়ে অস্বস্তিতে আছে মানুষ। পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে ঘরের বাইরে না বের হওয়ার।

তবে এর মধ্যেই শুরু হতে যাচ্ছে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটের সুপার লিগ পর্ব। আগামী ২২ এপ্রিল শুরু হবে ছয় দলের এই লড়াই।  

এর আগে সূচিসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ক্লাবগুলোর সঙ্গে বৈঠকে বসেছিল ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম)। এখানে তাদের কাছে অতিরিক্ত গরমের কারণে কিছু বাড়তি সুবিধা চেয়েছে ক্লাবগুলো। তাদের সেই আবদার মেটানোর চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সিসিডিএমের চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন চৌধুরী।

তিনি বলেন, ‘গরমের কারণে তারা কিছু অতিরিক্ত জিনিস চেয়েছে। সেটা মিটিংয়ে আমরা আলাপ আলোচনা করে নিশ্চিত করলাম ওগুলো যেন এভেইলেবল থাকে পরের ম্যাচে। ২২ তারিখ থেকে সুপার লিগ শুরু হবে। এরপর আমরা দুইদিন বিরতি দিয়ে...যেহেতু হিট, প্র্যাক্টিস, রেস্ট; তিনটা জিনিসের ইস্যু আছে, এজন্য ২৫ তারিখ হবে পরের ম্যাচ। ’

ক্লাবগুলোর কাছ থেকে কী ধরনের সুবিধা চাওয়া হয়েছে এমন প্রশ্নের উত্তরে সালাউদ্দিন বলেন, ‘কোথাও হয়তো এসি কাজ করছে না, কোথাও হয়তো অতিরিক্ত ফ্যান দরকার। কোথাও একটা অতিরিক্ত ফ্যাসিলিটিজ দরকার। এই জিনিসগুলো নিয়ে আলাপ হয়েছে। আমরা সেগুলো গ্রাউন্ডস কমিটিকে বলেছি। ’ 

সুপার লিগের প্রথম রাউন্ডে মিরপুরে আবাহনীর মুখোমুখি হবে প্রাইম ব্যাংক, বিকেএসপিতে শাইনপুকুর-গাজী গ্রুপ ও ফতুল্লায় লড়বে মোহামেডান-শেখ জামাল। দ্বিতীয় রাউন্ডে মিরপুরে মোহামেডান-প্রাইম ব্যাংক, বিকেএসপিতে শাইনপুকুর-শেখ জামাল ও ফতুল্লায় আবাহনীর মুখোমুখি হবে গাজী গ্রুপ।  

গরমের কারণে ইতোমধ্যেই বিভিন্ন কার্যক্রম সীমিত করা হচ্ছে। বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এমন তাপদাহের মধ্যে ৫০ ওভারের ম্যাচ খেলা কঠিন ক্রিকেটারদের জন্যও। এ অবস্থায় খেলা পিছিয়ে দেওয়ার কোনো সম্ভাবনা আছে কি না জানতে চাওয়া হয় সালাউদ্দিনের কাছে।

তিনি বলেন, ‘এজন্যই আমরা আজকে ও কালকে এভয়েড করলাম। পরশু দিন আমরা একটা ম্যাচ রেখেছি। তারপরে আমরা দুইদিন আরও বিরতি রেখেছি। যেন অবস্থা বুঝে সিদ্ধান্ত নিতে পারি। ২৫ তারিখের পরের শিডিউলটা আমরা এখনও ফাইনাল করিনি, ক্লাবের ফিডব্যাকের ওপর নির্ভর করে আমরা হয়তো এটা সেটেল করবো। ’

‘খেলোয়াড়দের খেলার যে কন্ডিশন এবং খেলোয়াড়দের যে পরিশ্রম সেটা নিয়ে ক্লাবগুলো কনসার্ন। অনেক খেলোয়াড় গরমের কারণে ইনজুরড হয়ে গেছে। তো ওরা ফাইনালি যেটাতে এগ্রি করেছে, আমরা সেই অনুযায়ীই করেছি। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৯১৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ২০, ২০২৪
এমএইচবি/আরইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।