ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৪ মে ২০২৪, ১৫ জিলকদ ১৪৪৫

ক্রিকেট

বেঙ্গালুরুকে ১ রানে হারাল কলকাতা

স্পোর্টস ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৩ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০২৪
বেঙ্গালুরুকে ১ রানে হারাল কলকাতা

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুকে ২২৩ রানের বিশাল লক্ষ্য দিয়েও ম্যাচের একদম অন্তিম মুহূর্তে প্রমাদ গুনছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। তবে শেষ বলে গড়ানো রোমাঞ্চকর লড়াই ন্যূনতম ব্যবধানে জিতলেন রাসেল-নারিনরা।

 

২০২৪ আইপিএলের ৩৬তম ম্যাচে মাত্র ১ রানে জয় পেয়েছে কলকাতা। ঘরের মাঠ ইডেন গার্ডেনসে আজ আগে ব্যাট করে ৬ উইকেটে ২২২ রানের বিশাল সংগ্রহ পায় স্বাগতিকরা। জবাবে ২২১ রান তুললেও সব উইকেট হারায় বেঙ্গালুরু।

লক্ষ্য তাড়ায় নেমে দলীয় ৩৫ রানে দুই ওপেনার বিরাট কোহলি (১৮) ও ফাফ ডু প্লেসির (৭) উইকেট হারায় বেঙ্গালুরু। যদিও কোহলির আউট নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে মাঠেই। হার্শিত রানার ফুল টস বলটিকে নো বল দাবি করছিলেন কোহলি। কিন্তু রিভিও নিলেও আম্পায়ারের সিদ্ধান্তই বহাল থাকে।

এরপর উইল জ্যাকস ও রজত পাতিদার মিলে ১০০-এর বেশি রানের জুটি গড়ে সেই ধাক্কা সামাল দেন। দুজনেই পেয়েছেন ফিফটির দেখা। তবে ১ রানের ব্যবধানে দুজনেই বিদায় নিলে ফের পিছিয়ে পড়ে সফরকারীরা। এরপর দ্রুত ফিরে যান ক্যামেরন গ্রিন (৪) ও মহীপাল লোমরোর (৪)

টানা উইকেট হারালেও বেঙ্গালুরুর রানরেট স্বাস্থ্যবান ছিল। কিন্তু স্বীকৃত ব্যাটার ছাড়া জয়ের পথে হাঁটা সহজ ছিল না। তবে দীনেশ কার্তিক আজকেও ব্যাট হাতে ভরসা হয়ে ছিলেন। তার ১৮ বলে ২৫ রানের ইনিংসটি আশা দেখাচ্ছিল বেঙ্গালুরুকে। তবে ১৯তম ওভারের শেষ বলে কার্তিককে আউট করে দেন আন্দ্রে রাসেল। তাতে বেঙ্গালুরুর আশার বেলুন চুপসে যায়।  

শেষ ওভারে ২১ রান মোটেই সহজ লক্ষ্য নয়। বেঙ্গালুরুর কোনো স্বীকৃত ব্যাটার নেই ক্রিজে। লোয়ার অর্ডার ব্যাটাররা মিলে মিচেল স্টার্কের ওভারে এত রান তুলে ফেলবেন, এত আশা হয়তো তারা নিজেরাও করেননি। কিন্তু পরিস্থিতি সেদিকেই যাচ্ছিল। কারণ এবারের আইপিএলে দেদারসে রান বিলিয়েছেন স্টার্ক। এই ম্যাচেও তার অন্যথা হয়নি।  

নিজের প্রথম দুই ওভারেই ৩৬ রান খরচ করা এই অজি ফাস্ট বোলার ইনিংসের শেষ ওভারের শুরুতেই হজম করলেন ছক্কা। এক বল বিরতি দিয়ে টানা দুই ছক্কা। ৩টি ছক্কাই এলো কর্ন শর্মার ব্যাট থেকে। আর তাতে শেষ ২ বলে মাত্র ৩ রান দরকার ছিল বেঙ্গালুরুর। হাল ছেড়ে দেওয়ার মতো অবস্থা কলকাতার। কিন্তু কাহিনী তখনও শেষ হয়নি।  

এবার ভাগ্য সহায় হলো স্টার্কের। পঞ্চম বলে তিনি কর্ন শর্মাকে (২০) কট অ্যান্ড বোল্ড করে ফেরালেন। আর শেষ বলে কোনোমতে বলে ব্যাট ছুঁইয়ে দৌড় দিলেন নতুন ক্রিজে আসা লোকি ফার্গুসন। পড়িমড়ি করে এক রান নিলেনও। কিন্তু দ্বিতীয় রান নিতে গিয়ে শিকার হলেন রানআউটের। দারুণ দক্ষতায় অনেকটা লাফিয়ে স্ট্যাম্প ভেঙে দিলেন কলকাতার উইকেটকিপার সল্ট।  ফলে জয় থেকে এক রান দূরে থামলো বেঙ্গালুরু।

কলকাতার হয়ে ৩ ওভারে ২৫ রান খরচে ৩ উইকেট নিয়েছেন রাসেল। এছাড়া ২টি করে উইকেট গেছে রানা ও সুনীল নারিনের ঝুলিতে।

এর আগে ইংলিশ ব্যাটার ফিল সল্টের মাত্র ১৪ বলে ৪৮ রানের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে ভালো শুরু পেলেও মাঝে খেই হারিয়ে ফেলেছিল কলকাতা। তবে পরে অধিনায়ক শ্রেয়াস আইয়ারের ৩৬ বলে ৫০ রান এবং রিংকু সিং (২৪), রাসেল (২৭*) ও শেষদিকে রমণদীপ সিংয়ের ৯ বলে ২৪ রানের ইনিংসে ভর করে বিশাল লক্ষ্য ছুড়ে দেয় কলকাতা।

এই জয়ে ফের দুইয়ে উঠে এলো কলকাতা। ৭ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ১০। সমান পয়েন্ট নিয়েও নেট রানরেটে পিছিয়ে থাকায় তিনে নেমে গেছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। আর শীর্ষে থাকা রাজস্থান রয়্যালসের সংগ্রহ ১২ পয়েন্ট।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৩ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০২৪
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।