ঢাকা, শুক্রবার, ৬ মাঘ ১৪২৮, ২১ জানুয়ারি ২০২২, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ক্রিকেট

হারের পথে বাংলাদেশ

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩৯ ঘণ্টা, মার্চ ৩০, ২০১৪
হারের পথে বাংলাদেশ ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়াম থেকে: পাকিস্তানের বেঁধে দেওয়া ১৯১ রানের টার্গেট দুঃসাধ্যই হয়ে পড়লো টাইগারদের জন্য। পুরো ম্যাচে ষোলকলা ব্যর্থতায় এখন আরেকটি হারের অপেক্ষায় বাংলাদেশ দল।



১৯১ রানের ‍টার্গেটে ব্যাটিং করতে নামা বাংলাদেশের ইনিংসের শুরু থেকেই প্রয়োজনীয় রান তোলার তাগাদা দেখা যায়নি। মাঝখানে সাকিব আল হাসান কিছুটা চেষ্টা করলেও ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গেছে।

প্রতিবেদনটি লেখা পর্যন্ত জয়ের জন্য ১২ বলে ৭১ রান দরকার বাংলাদেশের।

হংকংয়ের বিরুদ্ধে হার দিয়ে শুরু টি-টোয়েন্টির চূড়ান্ত পর্বের আগেকার ম্যাচগুলোর মতো রোববারও পাকিস্তানের বিপক্ষে টাইগার ব্যাটিংয়ে সেই পুরনো দুর্দশা চোখে পড়ে। মাত্র ৪৭ রান সংগ্রহ করতে ৪ উইকেট খোয়া যায় টাইগারদের। ৯১ রানে খোয়া যায় পঞ্চম উইকেট। ১১২ রানে ষষ্ঠ উইকেটের পর সর্বশেষ সপ্তম উইকেটের পতন ঘটে ১১৬ রানে। সাজঘরে ফেরার মিছিলে ভিড়ে গেছেন তামিম-বিজয়-শামসুর-মুশফিক-সাকিব-নাসির-জিয়াউর রহমান।

এর আগে, টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে ওপেনার আহমেদ শেহজাদের হার না মানা শতকে ১৯০ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান। নির্ধারিত ২০ ওভার খেলে এ রান সংগ্রহ করতে পাকিস্তানের উইকেট খোয়া যায় ৫টি।

এক প্রান্তে চার উইকেটের পতন ঘটলেও আরেক প্রান্ত আগলে রেখে দলের রানের চাকা এগিয়ে নেন শেহজাদ। দলকে এগিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি নিজের টি-টোয়েন্টির ক্যারিয়ারে প্রথম শতকও পূরণ করে নেন এ ড্যাশিং ওপেনার। ৬২ বলে ৫ ছক্কা ও ১০ চারের মারে ১১১ রানের হার না মানা ইনিংস খেলেন তিনি।

পঞ্চম ওভারে ওপেনার কামরান আকমলকে (১২) জিয়াউর রহমানের দুর্দান্ত ক্যাচে পরিণত করার পর নবম ওভারে মোহাম্মদ হাফিজকে সাজঘরে পাঠান ঘূর্ণি জাদুকর আব্দুর আজ্জাক। মুশফিকের স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার হওয়ার আগে ১২ বলে ৮ রানের ইনিংস খেলেন হাফিজ। রাজ্জাকের পর ১০ম ওভার করতে এসে উমর আকমলকে তামিম ইকবালের ক্যাচে পরিণত করেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ধারাবাহিক ফর্মে থাকা উমর অবশ্য এ ম্যাচে রানের খাতা খুলতে পারেননি। ১৮তম ওভারে সাকিবের বলে স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন শোয়েব মালিক। সবশেষে ৯ বলে ২২ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে আউট হন শহীদ আফ্রিদি। আল আমিন হোসেনের বলে জিয়ার হাতে ক্যাচ তুলেছেন তিনি।

জয়ের লক্ষ্যে বাংলাদেশ দলের হয়ে খেলছেন-তামিম ইকবাল, এনামুল হক বিজয়, শামসুর রহমান, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক), নাসির হোসেন, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, জিয়াউর রহমান, মাশরাফি বিন মর্তুজা, আবদুর রাজ্জাক ও আল আমিন হোসেন।

আর পাকিস্তান দলে রয়েছেন- কামরান আকমল, আহমেদ শেহজাদ, মোহাম্মদ হাফিজ (অধিনায়ক), উমর আকমল, শোয়েব মালিক, শোয়েব মাকসুদ, শহীদ আফ্রিদি, সোহেল তানভীর, উমর গুল, জুলফিকার বাবর ও সাঈদ আজমল।

সুপার টেনের দু’টি খেলায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে ৭৩ রানে এবং ভারতের সঙ্গে ৮ উইকেটে হেরে যাওয়ায় বাংলাদেশের সেমিফাইনালের আশা শেষ হয়ে যায়। তবে, ভারতের সঙ্গে ৭ উইকেটে হারলেও অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ১৬ রানে জয় পায় পাকিস্তান।

সে হিসেবে টাইগারদের নিজেদের চেনানোর এ লড়াইয়ের সঙ্গে সেমিতে স্থান পাওয়ার লক্ষ্যে খেলছে পাকিস্তান।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৭ ঘণ্টা, মার্চ ৩০, ২০১৪

**বাড়ছে ব্যবধান
**ব্যাটিংয়ে সেই পুরোনো চিত্র
**সাজঘরে তামিম-বিজয়
**ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ
**জিততে টাইগারদের প্রয়োজন ১৯১
**শেহজাদের শতক, বাড়ছে পাকিস্তানের রান
**সাজঘরে কামরান-হাফিজ-উমর আকমল
**-কামরানকে ফেরালেন রাজ্জাক
**বোলিংয়ে বাংলাদেশ
** টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ
** নিজেদের খুঁজে পাওয়ার দিন টাইগারদের
**
বিকেলে পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামছে টাইগাররা

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa