ঢাকা, শনিবার, ৮ মাঘ ১৪২৮, ২২ জানুয়ারি ২০২২, ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

আদালতে জবানবন্দি দিচ্ছেন মৃদুল চৌধুরী

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৪
আদালতে জবানবন্দি দিচ্ছেন মৃদুল চৌধুরী ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম সৈয়দ মাশফিকুল ইসলামের আদালতে সাক্ষী হিসেবে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিচ্ছেন অপহরণের শিকার স্বর্ণ ব্যবসায়ী মৃদুল চৌধুরী। বুধবার বিকাল সাড়ে চারটায় বিচারকের খাস খামরায় জবানবন্দি দিচ্ছেন তিনি।



এর আগে দুপুর ২টার দিকে কঠোর নিরাপত্তায় তাকে হাসপাতাল থেকে আদালতে ‍নেওয়া হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তার কোতোয়ালী থানার উপ পরিদর্শক কামরুজ্জামান বাংলানিউজকে বলেন,‘বুধবার বিকাল সাড়ে চারটায় মৃদুল চৌধুরীকে বিচারকের খাস খামরায় নেওয়া হয়। বিচারক সাক্ষী হিসেবে তার জবানবন্দি রেকর্ড করছেন। ’  

প্রসঙ্গত গত ১১ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নগরীর পুরাতন টেলিগ্রাফ রোডে নিজ বাসার সামনে থেকে র‌্যাবের বিরুদ্ধে মামলা করে আলোচিত ধনাঢ্য স্বর্ণ ব্যবসায়ী মৃদুল চৌধুরীকে তুলে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। এসময় তাদের এক আত্মীয় বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে দুর্বৃত্তরা নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে দ্রুত ওই স্থান ত্যাগ করে

এ ঘটনার পর মৃদুল চৌধুরীর পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়, জানুয়ারির মাঝামাঝিতে র‌্যাবের এক কর্মকর্তাসহ তিনজনের বিরুদ্ধে ৮০ ভরি স্বর্ণ লুটের একটি মামলা দায়ের করেন মৃদুল চৌধুরী। এ ঘটনার জের ধরে র‌্যাব তাকে অপহরণ করেছে বলে সন্দেহ করেন মৃদুলের স্ত্রী ও ভাই।

সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) ভোর ৬টার দিকে কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার কংশনগর বাজার থেকে দেবপুর ফাঁড়ির পুলিশ তাকে উদ্ধার করে।

সোমবার ভোর পৌনে ৪টায় মৃদুলকে কংশনগর এলাকায় চোখ বাঁধা অবস্থায় কৃষি জমিতে ফেলে দিয়ে যায় অপহরণকারীরা। পরে আহত অবস্থায় মৃদুল কংশনগর বাজারে এলে বাজারের নৈশপ্রহরী হারুনুর রশিদ ভূঁইয়া তাকে দেখতে পেয়ে উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে যান

খবর পেয়ে ভোর ৫টার দিকে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে দেবপুর ফাঁড়িতে নিয়ে আসে। সোমবার বিকেল ৫টার দিকে তাকে চট্টগ্রামে এনে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারী ১৯, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa