ঢাকা, বুধবার, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

মাকে গলা টিপে হত্যাচেষ্টা, সস্ত্রীক তিন পুত্র কারাগারে

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৩৬ ঘণ্টা, মার্চ ২, ২০১৪
মাকে গলা টিপে হত্যাচেষ্টা, সস্ত্রীক তিন পুত্র কারাগারে

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম নগরীর বন্দর থানার মধ্যম হালিশহরে আড়াই গণ্ডা জায়গা আছে ৮০ বছর বয়সী অশীতিপর বৃদ্ধা রওশন আরা বেগমের। স্বামীর মৃত্যুর পর এ সম্পত্তি তিনি অনেক কষ্টে আগলে রেখেছিলেন।

বৃদ্ধা মা যে কোন মুহুর্তে মারা যাবেন, এ চিন্তায় আগেভাগেই সম্পত্তি নিজেদের নামে ভাগ-বাটোয়ারা করে নিতে তৎপর রওশন আরার তিন ছেলে।

কিন্তু রওশন আরা কোনভাবেই ভাগ-বাটোয়ারার এ প্রস্তাবে রাজি হচ্ছিল না। তার ধারণা, জায়গা বণ্টন করে দিলে তার ছেলেরা সেগুলো বিক্রি করে ফেলবে। মৃত্যুর আগে নিজের সম্পদ হাতছাড়া হওয়া দেখতে চাননি রওশন আরা।

কোনভাবেই রাজি করাতে না পেরে তিন ছেলে ও তিন পুত্রবধূ মিলে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি নিজ বাসায় বৃদ্ধা মাকে গলা টিপে হত্যার চেষ্টা করে। পাষণ্ড সন্তানদের বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় আইনের আশ্রয় নেন মা।

সোমবার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম ফরিদুল আলম তিন ছেলে ও তিন পুত্রবধূকে কারাগারে পাঠিয়ে দেন।

আদালতে অশীতিপর বৃদ্ধা রওশন আরার পক্ষে দাঁড়ান অ্যাডভোকেট এস এইচ এম হাবিবুর রহমান আজাদ নামে এক আইনজীবী। বাংলানিউজের কাছে তিনি এ মর্মান্তিক ঘটনার বর্ণনা দেন।

অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান আজাদ বলেন, ‘পাষণ্ড তিন সন্তান ও পুত্রবধূ মিলে বৃদ্ধা রওশন আরাকে শ্বাসরোধ করে খুনের চেষ্টা করেছেন। তার মৃত্যু না হওয়ায় তাকে মারধর করে একটি ঘরে তালাবদ্ধ করে আটকে রাখেন। সভ্য যুগে গর্ভধারিণী মায়ের উপর এ ধরনের নির্যাতন কল্পনা করা যায়না। ’

আদালত সূত্রে জানা গেছে, গত ২৬ ফেব্রুয়ারি রওশন আরা মহানগর হাকিম ফরিদুল আলমের আদালতে দণ্ডবিধির ৩০৭, ৩২৩, ৩২৪, ৫০৬ ধারায় মামলা দায়ের করেন। ওইদিনই মামলাটি আমলে নিয়ে আদালত অভিযুক্ত ছয়জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

রোববার অভিযুক্ত ছয়জন আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন জানান। এসময় বৃদ্ধা মা আদালতে হাজির হয়ে তার উপর নির্যাতনের কথা বিচারকের সামনে বর্ণনা করেন। বৃদ্ধা মায়ের কান্নায় এসময় আদালতের পরিবেশ ভারী হয়ে উঠে।

বিচারক জামিন আবেদন নাকচ করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। কারাগারে যাওয়া ছয়জন হলেন, নূর ইসলাম (৪০) ও তার স্ত্রী শামীম আক্তার (৩৩), নূর আলম (৩৮) ও স্ত্রী পারভিন আক্তার (৩০) এবং নূর হোসেন (২৫) ও স্ত্রী বিউটি আক্তার (২০)।

বাদি রওশন আরা নগরীর মধ্যম হালিশহরের বাকেরটেক এলাকার মৃত নূরউদ্দিন ড্রাইভারের স্ত্রী।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩০ঘণ্টা, মার্চ ০২, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa