ঢাকা, রবিবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

আন্দোলনে যাচ্ছে কর্মচারীরা

জামায়াত-শিবিরের পৃষ্টপোষক সিডিএ চেয়ারম্যান!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪১ ঘণ্টা, মার্চ ১৭, ২০১৪
জামায়াত-শিবিরের পৃষ্টপোষক সিডিএ চেয়ারম্যান! ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চট্টগ্রাম: সিডিএতে কর্মরত কর্মচারী লীগের নেতা-কর্মীদের হয়রানি করে জামায়াত-শিবির সমর্থিতদের পৃষ্টপোষকতার অভিযোগ উঠেছে সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালামের বিরুদ্ধে।

সিডিএকে জামায়াত-শিবির মুক্ত করতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পক্ষের জনতা বর্তমান চেয়ারম্যানকে অপসারণের দাবি তুলেছেন।

রোববার চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে সিডিএ কর্মচারীলীগ নেতারা এসব অভিযোগ তুলে ধরেন।  

আবদুচ ছালামের জামায়াত-শিবির পৃষ্টপোষকতা, অনিয়ম, দুর্নীতি, সিডিএর সম্পত্তি আত্মসাত, ইউনিয়ন নেতাদের বদলির প্রতিবাদে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

চেয়ারম্যানের অযথা হয়রানি, কারণ ছাড়া বদলি এবং সিডিএকে জামায়াত-শিবিরের ঘাটি হিসেবে পরিণত করায় আগামী বুধবার থেকে আন্দোলনে নামার ঘোষণা দেওয়া হয় সংবাদ সম্মেলনে।

দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত সিডিএ ভবন ঘেরাওসহ লাগাতার অবরোধ, বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন, প্রতিবাদ সমাবেশ অব্যাহত থাকবে বলে জানান সিডিএ কর্মচারী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব।

সংবাদ সম্মেলনে সিডিএ চেয়ারম্যানকে সুবিধাবাদী আখ্যা দিয়ে লিখিত বক্তব্যে হাবিবুর রহমান বলেন, প্রধানন্ত্রী যখন দেশ থেকে দুর্নীতি ও স্বাধীনতা বিরোধী জামায়াত-শিবির চক্রের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করে চলেছেন। ঠিক সে সময়ে দলের ভেতর কিছু সুবিধাবাদী লোক ঢুকে পড়েছে।

তিনি বলেন, চাটুকারিতার মাধ্যমে পদ-পদবী হাসিল করে দলের ভাবমূর্তি ও আদর্শের বিরুদ্ধে চক্রান্ত শুরু করেছে সিডিএ চেয়ারম্যান।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, চান্দগাঁও এলাকায় ৩ দশমিক ৩০কাঠা খেলার মাঠের জায়গা জামায়াত-শিবির নেতাদের সমিতির নামে ১ টাকা টোকেন মূল্যে বরাদ্দ দেওয়া হয়। একইভাবে সিডিএ চেয়ারম্যানের মা-বাবার নামে প্রতিষ্ঠিত মাবিয়া-রশিদিয়া ভোকেশনাল ইন্সটিটিউটের ‍জায়গা ১ টাকা টোকেন মূল্যে প্রদান করা হয়।

এছাড়া চন্দ্রিমা আবাসিক এলাকার ৫ কাঠা জায়গা জামায়াত নিয়ন্ত্রিত সমিতির নামে ১ টাকা টোকেন মূল্যে প্রদান করে কোটি কোটি টাকার ক্ষতি করছে।

সম্প্রতি সিডিএ প্লট বরাদ্দ নীতিমালার শর্ত লঙ্ঘন করে মন্ত্রী, এমপি ও সাংবাদিকদের নামে ২৫ থেকে ৩০টি প্লট বরাদ্দ প্রদান করেছেন উল্লেখ করে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, আত্মীয়-স্বজনদের নামে ৪০টিরও বেশি প্লট বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

আবদুচ ছালাম সিডিএ মালিকানাধীন বিভিন্ন সম্পত্তি আত্মসাত করছেন বলেও অভিযোগ করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪০ ঘণ্টা, মার্চ ১৭, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa