ঢাকা, রবিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

বোয়ালখালী পৌরসভা নির্বাচন

গ্রেফতার-পুলিশি হয়রানি বন্ধের দাবি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২১
গ্রেফতার-পুলিশি হয়রানি বন্ধের দাবি ছবি: সোহেল সরওয়ার

চট্টগ্রাম: বোয়ালখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ও ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী শাহজাদা এস, এম, মিজানুর রহমান বলেছেন, ভোট গ্রহণের দিন নিকটে আসার সঙ্গে সঙ্গে গত কয়েক দিন থেকে অদৃশ্য ইশারায় নির্বাচনী এলাকায় আমার বিরুদ্ধে নানা অপপ্রচার চালাচ্ছে। সঙ্গে শুরু হয়েছে নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার জন্য নানা ধরনের হুমকি, ভয়-ভীতি দেখানো হচ্ছে কর্মী সমর্থকদের।

নির্বাচন ঘনিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে আমার পােস্টার ব্যানার ছিঁড়ে ফেলা হচ্ছে। বোয়ালখালী পৌরসভা নির্বাচনে গ্রেফতার-পুলিশি হয়রানির বন্ধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি জানাই।

শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে অবাধ সুষ্ঠু নিরপক্ষ নির্বাচন এবং টেবিল ল্যাম্প প্রতীকের কর্মী সমর্থকদের হুমকি ও হয়রানি বন্ধের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।  

সাবেক প্যানেল মেয়র শাহজাদা এস, এম, মিজানুর রহমান বলেন, গত বৃহস্পতিবার রাত থেকে কর্মী সমর্থকদের ঘরে পুলিশি তল্লাশি, হয়রানি ও নির্যাতন শুরু হয়েছে। কর্মী সমর্থকদের তালিকা তৈরি করে, তালিকা ধরে ধরে পুলিশি তল্লাশি শুরু হয়েছে। মুক্তিযােদ্ধা রিভারভিউ এলাকায় গত কয়েকদিন নির্বাচনী কাজে নিয়ােজিত কর্মী ও সমর্থকদের ২৫-৩০ জন পুলিশ সদস্য মারমুখী আচরণ করেছে। এ ধরনের পুলিশি আচরণে হতবাক, বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছে জনগণ ও সাধারণ ভােটাররা।  

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে ভােটের সুষ্ঠু পরিবেশ ও এলাকার শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষা আহ্বান জানিয়ে কাউন্সিলর প্রার্থী শাহজাদা এস, এম, মিজানুর রহমান বলেন, মনােনয়ন দাখিল ও প্রচার প্রচারণা শুরু হওয়ায় আমার ও আমার কর্মী সমর্থক এবং ভােটাররা নানা ধরনের হুমকি ধমকি সহ্য করে আসছে। ইতিমধ্যেই নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় বাধা, ভয়-ভীতির বিষয়ে রিটার্নিং অফিসারের কাছে লিখিত অভিযােগ করেছি। এ বিষয়ে আমি জেলা প্রশাসক, ডিআইজি, পুলিশ সুপার ও র‌্যাব-৭ এর কার্যালয়ে অভিযােগ করেছি। কোনো অদৃশ্য শক্তির ইশারায় পুলিশ অতি উৎসাহিত হয়ে ভােটার, সমর্থক ও কর্মীদের ওপর নির্যাতন নিপীড়ন, হয়রানি, ঘরে ঘরে তল্লাশি ও গ্রেফতার আতঙ্ক সৃষ্টি করা হচ্ছে প্রতিদিন। এতে করে ১ নম্বর ওয়ার্ডের ভােটের পরিবেশকে নষ্ট করা হচ্ছে। অন্য আট ওয়ার্ডে এই ধরনের আচরণ দেখা যাচ্ছে না।

নির্বাচনে ভােটের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত ও প্রশাসনের নিরপেক্ষ ভূমিকা রাখার আহ্বান জানিয়ে বলেন, জনগণের রায় জনগণই প্রয়ােগ করতে পারবে। আগামী সোমবার বােয়ালখালীর পৌর নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে পুলিশসহ প্রশাসন অদৃশ্য চাপমুক্ত থেকে কাজ ও মানুষের ভােটের অধিকার নিশ্চিত করবেন প্রশাসনের কাছে এটা আশা করি।  

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রেজাউল করিম পারভেজ, মো.বখতিয়ার,মো.মহিউদ্দিন, এস.এম মুসাদ্দিকুর রহমান ফয়সাল, সাদ নূর, রোকসানা বেগম, ওয়াসিম ও ফাতেমা বেগম প্রমুখ।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২১
এমআই/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa