ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ মে ২০২২, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

পোশাকশিল্পের আমদানি-রফতানি দ্রুত করতে বিজিএমইএ-সিঅ্যান্ডএফ সভা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৫৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২২
পোশাকশিল্পের আমদানি-রফতানি দ্রুত করতে বিজিএমইএ-সিঅ্যান্ডএফ সভা বিজিএমইএ এবং সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের মতবিনিময় সভা

চট্টগ্রাম: তৈরি পোশাকশিল্পের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম দ্রুততর করতে মতবিনিময় সভা করেছে বিজিএমইএ ও চিটাগাং কাস্টমস সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশন।  

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় খুলশীর বিজিএমইএ চট্টগ্রাম কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি একেএম আকতার হোসেনের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল সভায় অংশ নেন।

বিজিএমইএ’র প্রথম সহ-সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি রাকিবুল আলম চৌধুরী, বিজিএমইএ’র পরিচালক ও সাবেক প্রথম সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আবদুস সালাম, পরিচালক মো. হাসান (জ্যাকী), এম আহসানুল হক, সাবেক প্রথম সহ-সভাপতি এরশাদ উল্লাহ, এসএম আবু তৈয়ব, নাসিরউদ্দিন চৌধুরী, নাসিরউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী, মঈনউদ্দিন আহমেদ (মিন্টু), সাবেক সহ-সভাপতি মোহাম্মদ ফেরদৌস, এএম চৌধুরী সেলিম, সাবেক পরিচালক লিয়াকত আলী চৌধুরী, অঞ্জন শেখর দাশ, মোহাম্মদ মুসা, শেখ সাদী, সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, প্রথম যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী মাহমুদ ইমাম বিলু, কাস্টমস বিষয়ক সম্পাদক ওবাইদুল হক আলমগীর, বন্দর বিষয়ক সম্পাদক লিয়াকত আলী হাওলাদার, যুগ্ম বন্দর সম্পাদক আমিনুল হক উপস্থিত ছিলেন।  

সৈয়দ নজরুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতির অন্যতম চালিকা শক্তি তৈরি পোশাক শিল্পের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম দ্রুততার সঙ্গে সম্পাদনে কার্যকরী ভূমিকা রাখার জন্য  সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশন নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই।  

করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির মধ্যেও পোশাক শিল্পের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম পরিচালনায় কাস্টমস ও বন্দর কর্তৃপক্ষের সার্বিক সহযোগিতার জন্যও তিনি কৃতজ্ঞতা জানান।  

তিনি বলেন, করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য-বিধি প্রতিপালনপূর্বক কারখানার উৎপাদন কার্যক্রম সচল রাখায় বর্তমানে বিদেশি ক্রেতা কর্তৃক ক্রয়াদেশ দিন দিন বাড়ছে। উক্ত রফতানি আদেশগুলো বাস্তবায়নে আমদানি পণ্য চালান দ্রুত খালাস ও যথাসময়ে জাহাজীকরণে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।  

তিনি পোশাক শিল্পের আমদানি-রফতানি সংশ্লিষ্ট কাস্টমস ও বন্দরের কার্যক্রম সহজীকরণপূর্বক দ্রুততার সঙ্গে সম্পাদনের লক্ষ্যে কর্মকৌশল নির্ধারণে যৌথ ওয়ার্কিং কমিটি গঠন এবং রফতানির প্রবৃদ্ধি অব্যাহত রাখার স্বার্থে বিজিএমইএ ও সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট একযোগে কাজ করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।  

একেএম আকতার হোসেন বলেন, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও কর্মসংস্থানে পোশাক শিল্প গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। পোশাক শিল্পের রফতানির প্রবৃদ্ধির ওপরই দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি নিহিত। রফতানি ধারা অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে কাস্টমস ও বন্দর কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে আমদানি পণ্য চালান দ্রুত খালাস ও যথাসময়ে রফতানিতে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টরা সচেষ্ট রয়েছেন।  

সভায় পোশাক শিল্পের আমদানি-রফতানিতে কাস্টমস ও চট্টগ্রাম বন্দরে বিরাজমান সমস্যা চিহ্নিতকরণ ও কার্যক্রম সহজীকরণে কর্মকৌশল নির্ধারণের লক্ষ্যে বিজিএমইএ ও চিটাগাং কাস্টমস সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিনিধি সমন্বয়ে যৌথ ওয়ার্কিং কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির প্রতিবেদনের আলোকে পরবর্তীতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে প্রয়োজনীয় জরুরি উদ্যোগ নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২২
এআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa