ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

অর্থনীতি-ব্যবসা

কেয়া কসমেটিক্স ও ঢাকা ফিশারিজের লেনদেন পুনরায় চালু

এসএম গোলাম সামদানী, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫১ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১০
কেয়া কসমেটিক্স ও ঢাকা ফিশারিজের লেনদেন পুনরায় চালু

ঢাকা: নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ায় নতুন করে চালু হয়েছে কেয়া কসমেটিকস ও ঢাকা ফিশারিজের শেয়ার লেনদেন।

‘অস্বাভাবিক’ মূল্যবৃদ্ধির কারণ অনুসন্ধানের তদন্ত শেষে এ দু’ কোম্পানিকে রোববার দুপুর ১২টা থেকে পুনরায় লেনদেন চালুর অনুমতি দেয় ঢাকা স্টক একচেঞ্জ (ডিএসই)।

লেনদেন চালুর প্রথম দিনেই কোম্পানি দু’টির শেয়ারের দাম উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে।

জানা গেছে, মূল্য সংবেদনশীল কোনো তথ্য না থাকলেও গত কিছুদিন ধরে শেয়ারবাজারে কেয়া কসমেটিক্স’র শেয়ারের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যায়। দরবৃদ্ধির এ প্রবণতা দেখে বিনিয়োগকারীদের সতর্ক করতে গত ২২ আগস্ট এর শেয়ার লেনদেন সাময়িকভাবে বন্ধ রাখে ডিএসই।

এরপরও শেয়ারের দর বাড়তে থাকায় এর কারণ অনুসন্ধানে গত ২৯ আগস্ট তদন্ত শুরু করে ডিএসই। ওইদিন থেকে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত এর লেনদেনও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়।

অন্যদিকে প্রায় একইভাবে পুঁজিবাজারে ঢাকা ফিশারিজেরও শেয়ারের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যায়। এ পরিস্থিতিতে গত ২৬ আগস্ট কোম্পানির কাছে এর কারণ জানতে চেয়েছিল ডিএসই। তবে শেয়ারের দরে প্রভাব পড়ার মতো কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই বলে ডিএসই কে জানায় কোম্পানি।

ডিএসইর অনুসন্ধানের জবাব দিতে দেরি করায় ওইদিন ঢাকা ফিশারিজের শেয়ার লেনদেন বন্ধ রাখা হয়েছিল। এরপরও এর শেয়ারের দর বাড়তে থাকায় ২৯ আগস্ট থেকে লেনদেন অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করে দেয় ডিএসই। পাশাপাশি দরবৃদ্ধির কারণ তদন্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়।

ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, তদন্ত শেষ হলেও ঢাকা ফিশারিজ ও কেয়া কসমেটিক্স’র শেয়ার লেনদেনে বড় কোনো অনিয়ম চিহ্নিত করা সম্ভব হয়নি। মূল্য সংবেদনশীল কোনো তথ্য না থাকলেও গুজবের উপর ভিত্তি করে শেয়ারের দর বেড়েছে। তবে কারা কীভাবে গুজব ছড়িয়েছেÑ তা সুনির্দিষ্টভাবে চিহ্নিত করা সম্ভব হয়নি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa