ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মাঘ ১৪২৯, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১১ রজব ১৪৪৪

বিনোদন

পপ তারকা ক্রিস্টিন ম্যাকভির প্রয়াণ

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২২
পপ তারকা ক্রিস্টিন ম্যাকভির প্রয়াণ ক্রিস্টিন ম্যাকভি

ফ্লিটউড ম্যাক ব্যান্ডের অন্যতম সদস্য গায়িকা, গীতিকার ক্রিস্টিন ম্যাকভি মারা গেছেন। বুধবার (৩০ নভেম্বর) এ গায়িকার মৃত্যু হয়।

এ সময় তার বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর।

ক্রিস্টিন ম্যাকভির পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়, বুধবার সকালে হাসপাতালে মারা যান তিনি। এ সময় পরিবারের সদস্যরা পাশেই ছিলেন। সামাজিকমাধ্যমে ব্যান্ডের পক্ষ থেকেও ম্যাকভির মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করা হয়। তবে তার মৃত্যুর কারণ প্রকাশ করা হয়নি।

১৯৭০ সালে ফ্লিটউড ম্যাকে যোগ দেওয়ার পর দ্রুতই ব্যান্ডটির প্রাণভোমরা হয়ে ওঠেন ম্যাকভি। ‘লিটল লাইস’, ‘এভরিহয়ার’, ‘ডোন্ট স্টপ’, ‘সে ইউ লাভ মি’, ‘সংবার্ড’র মতো বিখ্যাত গানের সঙ্গে জড়িয়ে আছে তার নাম।

সত্তর ও আশির দশকে ফ্লিটউড ম্যাক ছিল সারা দুনিয়ার অন্যতম সেরা রক ব্যান্ড। ১৯৭৭ সালে মুক্তি পায় ব্যান্ডের অ্যালবাম ‘রিউমারস’, যা তৈরি হয় ম্যাকভিসহ ব্যান্ডের আরো দুই যুগলের বিচ্ছেদের প্রেরণায়। চার কোটির বেশি বিক্রি হওয়া অ্যালবামটিকে সর্বকালের ব্যবসাসফল অ্যালবামগুলোর একটি বলে মনে করা হয়।  

ম্যাকভি ১৯৬৯ সালে ব্যান্ড সহকর্মী জন ম্যাকভিকে বিয়ে করার পর ব্যান্ডে যোগ দেন। তবে সাত বছর পর তাদের সম্পর্ক ভেঙে যায়। বিচ্ছেদ হলেও তাদের মধ্যে পেশাদারি সম্পর্ক বজায় ছিল। ১৯৯৮ সালে ব্যান্ডটি ‘রক অ্যান্ড রোল হল অব ফেমে’ জায়গা পায়।

ব্যান্ডের সঙ্গে নিজের একক অ্যালবামও প্রকাশ করেছেনে ম্যাকভি। ১৯৭০ ও ১৯৮৪ সালে প্রকাশিত তার দুই অ্যালবাম ‘ক্রিস্টিন পারফেক্ট’ ও ‘ক্রিস্টিন ম্যাকভি’। নব্বইয়ের দশকের শেষ দিকে ব্যান্ড থেকে আলাদা হয়ে যান ম্যাকভি। তবে সাময়িক এ অবসর ভেঙে প্রায় ১৫ বছর পর ২০১৪ সালে আবারো ফিরে আসেন।

১৯৪৩ সালের ১২ জুলাই ল্যাঙ্কাশায়ারে জন্ম ক্রিস্টিন ম্যাকভির। মাত্র ৪ বছর বয়সে পিয়ানো শেখা শুরু তার। আর ১১ বছর বয়সে গানকে সিরিয়াসলি নেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০১, ২০২২
এনএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa