ঢাকা, সোমবার, ৪ আশ্বিন ১৪২৮, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ সফর ১৪৪৩

বিনোদন

মরীচিকা: দানবের বিনাশ নাই?

মুহাম্মাদ আলতামিশ নাবিল, অতিথি লেখক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৭ ঘণ্টা, জুলাই ২৩, ২০২১
মরীচিকা: দানবের বিনাশ নাই?

নেটফ্লিক্সে ২০২০ সালে মুক্তি পেয়েছিলো ৩৫৬ ডে’জ নামে একটি পোলিশ চলচ্চিত্র যাতে ডন মাসিমো খল চরিত্রে অভিনয় করা মাইকেল মরন আলোড়ন তোলেন তার লুক ও অভিনয় দিয়ে।  

এক বছর পর দেশীয় প্ল্যাটফর্ম চরকিতে মুক্তি পাওয়া ওয়েব সিরিজ ‘মরীচিকা’য় দেখা গেল এমনই এক খলচরিত্র ‘বাবু ভাই’! যার চরিত্রে রূপদান করেছেন ছোট পর্দার অভিনেতা আফরান নিশো।

সিরিজ শেষে দর্শক হিসেবে অভিব্যক্তি, আমাদের বাবু ভাই সেই ডন মাসিমো থেকে কয়েক গুণে দুর্দান্ত ও শক্তিশালী চরিত্র।

বিদেশি ওটিটি প্ল্যাটফর্মের ভিড়ে দেশি প্ল্যাটফর্মেও যে কম যায় না, তার একটি বড় উদাহরণ ‘চরকি’। বিগ বাজেটের আকর্ষণীয় সব ওয়েব সিরিজ, পূর্ণদৈর্ঘ্য, স্বল্পদৈর্ঘ্য দিয়ে যাত্রা শুরু করে ইতোমধ্যেই দর্শকের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে পৌঁছেছে এটি। আর প্ল্যাটফর্মটির উদ্বোধনী সময়ে তুরুপের তাস এই ‘মরীচিকা' ওয়েব সিরিজ। যে সিরিজে একসঙ্গে অভিনয়ে দেখা গেছে ঢালিউড হার্টথ্রব মাহিয়া মাহি, টিভি পর্দার সুপারস্টার আফরান নিশো, চিত্রনায়ক সিয়াম আহমেদ, অভিনেতা ফারহান আহমেদ জোভান ও খলঅভিনেতা শিমুল খানকে।

‘দানবের বিনাশ নাই, আমার বিনাশ নাই’- বাবু ভাই

সত্য ঘটনার অনুপ্রেরণায় নির্মাতা শিহাব শাহীন শুরুতে নির্মাণ করেছিলেন ‘আগস্ট ১৪’ ওয়েব সিরিজ, এবারে তিনি বানালেন ‘মরীচিকা’। আগের সিরিজটি ছিল পুলিশ বাবা ও মাকে হত্যার কাহিনী নিয়ে এক কিশোরীর গল্প। গুঞ্জন রয়েছে, এবারের সিরিজটি ১৮ বছর আগে ঘটে যাওয়া এক মডেল হত্যার চাঞ্চল্যকর ঘটনা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মিত। যদিও নির্মাণ সংশ্লিষ্টরা এ মিলের ব্যাপারটিকে সম্পূর্ণ কাকতালীয় বলে দাবি করেছেন! তবে পর্দা বনাম সত্য ঘটনার মিলে এতটা কাকতালীয় হতে পারে কী-না সে প্রশ্ন রয়েই যায়!

‘মরীচিকা’ মোটাদাগে একটি সাধারণ মেয়ের দেশ সেরা মডেল-অভিনেত্রী হওয়ার অভিপ্রায়, তার হত্যা এবং পরবর্তী তদন্তের ঘটনা নিয়ে। সে গল্পে আছে নব্য এসআই সাকিলের সঙ্গে সেই কথিত ‘দানব’ যুবনেতা ও প্রযোজক সালাম শরীফ ওরফে বাবু ভাই এর অসম দ্বৈরথ।  

পরিচালক শিহাব শাহীন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেওয়া এক বিবৃতিতে জানিয়েছিলেন, বাবু ভাইয়ের খলচরিত্রটি তিনি এমনভাবে তৈরি করেছেন যা ‘হেইট টু লাভ’! দর্শকরা সেই চরিত্রায়ন দর্শন শেষে নিজের উপরেই রাগ হবেন কেন তারা মনের অজান্তেই সেই খলচরিত্রকে ভালোবেসে ফেলল। বাবু ভাইকে দেখে মনে হয়েছে আফরান নিশো ছাড়া এই চরিত্রে আর কাউকে মানাতো না। এদেশে ওটিটিতে অভিনয়ের পুরস্কারের ব্যবস্থা চালু হলে নিজ ক্যাটাগরির সমস্ত পুরস্কার হস্তগত করার জোর দাবি রাখেন নিশো।  

ঢালিউড নায়িকা মাহিয়া মাহি তার ক্যারিয়ার সেরা অভিনয় করেছেন এতে কোনো সন্দেহ নেই। তদুপরি তিনি পর্দায় বাকি অভিনেতাদের ছাপিয়ে কিংবা সমানতালে যেতে পেরেছেন কিনা সে প্রশ্নও রয়ে যায়। এসআই শাকিল চরিত্রে সিয়াম আহমেদের মধ্যে খুঁজে পাওয়া গেল এক সৎ, আবেগী তুলনামূলক কম অভিজ্ঞ পুলিশ অফিসারকে যিনি কর্মক্ষেত্রে ওয়ার্ক পলিটিক্সের শিকার হয়ে নিজের প্রতিভাকে ঠিকভাবে বিকাশ করতে পারছেন না। আত্মবিশ্বাসের অভাব যেন তার চরিত্রেরই একটা অংশ। অপরদিকে বহ্নির নিরুপায় স্বামীর একটি স্বল্পপরিসর চরিত্রে ফারহান আহমেদ জোভান ছিলেন চরিত্র অনুযায়ী ঠিকঠাক। তবে গল্পে তার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল।

আট পর্বের সিরিজটির পর্বগুলোর নাম বেওয়ারিশ লাশ, পিচ্ছিল সিঁড়ি, বাবু ভাই, কানাগলি, বাগানবাড়ি, প্রত্যক্ষদর্শী, ফেরার পথ নেই ও পাপচক্র। প্রথম ও শেষ পর্বের দৈর্ঘ্য ৪০ মিনিটের অধিক হলেও বাকিগুলো তার চেয়ে ছোট, সবমিলিয়ে প্রায় চার ঘণ্টা ব্যাপ্তির সিরিজ এটি।

সাধারণত থ্রিলার গল্পে শেষ মুহূর্তে খুনি ধরার মতো এই সিরিজটিতে কোনো মিল নেই। গল্পের প্রথমেই জানা যায় খুনি কে, তারপরও প্রত্যেক পর্বে থ্রিলার আমেজটা বজায় রাখার জোর চেষ্টা ছিল নির্মাতার পক্ষ থেকে, এজন্য একটি অতিরিক্ত সাধুবাদ অবশ্যই প্রাপ্য শিহাব শাহীনের। টাইটেল অ্যানিমেশন আর আবহসঙ্গীত মিলে আলাদা একটা মায়াময় আবেশ তৈরি করেছেন পরিচালক। খৈয়াম সানু সন্ধির সংগীতায়োজন প্রশংসার দাবিদার।

হলিউড-বলিউড ইউরোপিয়ান সিনেমা দেখে তৃপ্ত দর্শক মন অবশ্যই থ্রিলারধর্মী এই কাজটিতে অ্যাকশন দৃশ্যগুলোর অবতারণায় চিত্রগ্রহণ, অ্যাকশন কোরিওগ্রাফিতে আরও বাণিজ্যিক ট্রিটমেন্ট আশা করেছিলেন। প্যারালাল স্টোরিটেলিং হলেও শেষদিকে টুইস্ট হিসেবে পরিচিত একজন ব্যক্তির বাবু ভাই গ্যাং-এর সঙ্গে যুক্ত থাকার ব্যাপারটি দর্শক মনে যথেষ্ট ধাক্কা দিতে পারেনি। আর সর্বোপরি গল্পের টানটান থ্রিলটা বজায় রাখার জন্য কাহিনীর অপ্রয়োজনীয় অংশগুলো বাদ দিয়ে আট পর্বের বদলে চার কিংবা পাঁচ পর্বের মধ্যে সিরিজটি শেষ করে দিলেই বোধকরি ভালো হতো।  

বাংলাদেশ সময়: ২০০৭ ঘণ্টা, জুলাই ২৩, ২০২১
জেআইএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa