ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

চট্টগ্রামে ব্যতিক্রমধর্মী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চিটাগাং জুনিয়র স্কুলের যাত্রা শুরু

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৪
চট্টগ্রামে ব্যতিক্রমধর্মী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চিটাগাং জুনিয়র স্কুলের যাত্রা শুরু

চট্টগ্রাম: ‘আনন্দ ফুর্তিতে ভরপুর পরিবেশে শিক্ষাদান’ স্লোগানকে সামনে রেখে চট্টগ্রামে যাত্রা শুরু করেছে ব্যতিক্রমধর্মী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চিটাগাং জুনিয়র স্কুল।

নগরীর নাসিরাবাদ হাউজিং সোসাইটি ৩ নং সড়কের ৩ নং বাড়ীতে বিদ্যালয়টির উদ্বোধন করেন পিএইচপি গ্রুপের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সুফী মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।



চিটাগাং জুনিয়র স্কুলের চেয়ারম্যান আহসানুল কাদের এজাজের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- গ্লাক্সো স্মিথ ক্লায়েনের মানব সম্পদ বিভাগের পরিচালক একেএম ফিরোজ আলম, পিএইচপি গ্রুপের পরিচালক আনোয়ারুল হক, স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা ফৌজিয়া আক্তার জাহান, রোটারীয়ান নাসির মাহমুদ, মহসিন জামাল, নাসিরাবাদ হাউজিং সোসাইটির সদস্য জিয়া উদ্দিন চৌধুরী, স্কুলের পরিচালক হাসিনা আক্তার ও নিজাম আফতাব চৌধুরী।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সুফী মিজান বলেন, ‘শিশুরা অসীম সম্ভাবনার আধার। জাগতিক জীবন যাপনের জন্য পাঠ্যক্রম অনুযায়ী যুগোপযোগী লেখাপড়ার পাশাপাশি সুনাগরিক ও ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য নৈতিক শিক্ষার যথেষ্ট গুরুত্ব রয়েছে। শিক্ষার সাথে যদি সৎ চরিত্রের মিশ্রণ না ঘটে সেই শিক্ষা ব্যর্থ হতে বাধ্য। ’

অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে সুফী মিজান বলেন,‘আমার নাতনীকে এ স্কুলে ভর্তি করেছি। আমি ব্যবস্থাপনা কমিটি ও স্কুলের প্রধান ফৌজিয়া আক্তার জাহানকে বহুদিন ধরে ব্যক্তিগতভাবে জানি। উনারা আলোকিত মানুষ। আমি আস্থা রেখেছি, আপনারাও আস্থা রাখতে পারেন। আপনাদের সহযোগিতা পেলে এই স্কুলটি উনাদের নেতৃত্বে অনেক বড় হবে ইনশাআল্লাহ। ’

এসময় তিনি স্কুলের ব্যবস্থাপনা কমিটিকে জাতি গঠনের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালনের প্রতি সজাগ দৃষ্টি রাখতে অনুরোধ করেন।

একেএম ফিরোজ আলম বলেন, ‘সমমনা কয়েকজন মিলে সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে এই স্কুলটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এর মান অবশ্যই ধরে রাখতে হবে। সফলভাবে স্কুলটির যাত্রা শুরুর পেছনে যারা আন্তরিকভাবে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। ’

অনুষ্ঠানে অভিভাবকদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন ব্যাংকার মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন। তিনি বলেন ‘অনেক পুরনো প্রতিষ্ঠিত স্কুল ফেলে আপনাদের প্রতিশ্রুতির উপর আস্থা রেখে আমরা এই স্কুলে সন্তান ভর্তি করিয়েছি। স্কুল কমিটিকে পড়ালেখার উন্নত মান নিয়ে কোন আপোষ না করার জন্য অনুরোধ করছি । ’

সমাপনি বক্তব্যে আহসানুল কাদের এজাজ বলেন,‘প্রকৃতির অবারিত আলো বাতাসে ভরপুর সুপরিসর শ্রেণীকক্ষ, বর্ণিল আসবাবপত্র, কোমলমতি শিশুদের মানসিক উৎকর্ষতা বৃদ্ধির সাথে সঙ্গতিপূর্ণ মনোরম আভ্যন্তরীণ সাজ সজ্জা, পর্যাপ্ত সামগ্রীসহ বিশাল  প্লে-জোন, সুশিক্ষিত, অভিজ্ঞ ও আন্তরিক শিক্ষিকমন্ডলী রয়েছে এখানে। শিশুদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও লেখাপড়ার প্রতি আগ্রহ সৃষ্টির সব উপাদানই রয়েছে এই স্কুলটিতে। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারী ০৩, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa