ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

গ্রামীণ নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২১
গ্রামীণ নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস

ঢাকা: গ্রামীণ নারী উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য বিক্রির জন্য আসছে নতুন ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস। এ লক্ষ্যে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ‘তথ্য আপা’ প্রকল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের বাংলাদেশ ফরেন ট্রেড ইনস্টিটিউটের (বিএসটিআই) মধ্যে ই-কমার্স বিষয়ে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে।

বুধবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সচিবালয়ে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।

‘তথ্য আপা’ প্রকল্পের পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব মীনা পারভীন এবং বাংলাদেশ ফরেন ট্রেড ইনস্টিটিউটের পক্ষে ইনস্টিটিউটের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আলী আহমেদ সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী রওশন আক্তার ও বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী রওশন আক্তার বলেন, মহিলা বিষয়ক মন্ত্রণালয় নারীর ক্ষমতায়নের জন্য বিভিন্ন প্রকার কর্মসূচি ও প্রকল্প বাস্তবায়ন করে চলেছে। এ সমঝোতা স্মারকের মাধ্যমে নতুন সে ধরনের আরও একটি দ্বার উন্মোচিত হচ্ছে।

তিনি বলেন, এই প্রকল্পটি অনেক আগে শুরু হয়েছিল। একটা কাজ করতে অনেক সময় লাগে। তবে সময় লাগলেও আজকে চমৎকার একটি স্মারক তৈরি হয়েছে। আমরা একেবারে প্রত্যন্ত অঞ্চলে তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে নারীদের ক্ষমতায়ন করার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছি। করোনাকালীন সময়ে ই-কমার্সের যে ব্যাপ্তি, একটা সময় মানুষের জীবন থেমে গিয়েছিল। কিন্তু ই-কমার্সের মাধ্যমে অনেক বড়-বড় সমস্যার সমাধান হয়েছে।  

সিনিয়র সচিব বলেন, গ্রামীণ মহিলাদের আত্মকর্মসংস্থানের মাধ্যমে স্বাবলম্বী করে তোলা হচ্ছে। নারীর ক্ষমতায়নের জন্য একটি অন্যতম শর্ত হলো অর্থনৈতিক মুক্তি। নারীরা যদি এভাবে স্বাবলম্বী হয়, একটা সময় আর সংকট থাকবে না, এ বিষয়ে আমরা আশাবাদী।

অনুষ্ঠানে বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন বলেন, এই প্রকল্পের নামের মধ্যেই মায়া আছে। এই প্রকল্পের শুরুতে যারা ছিলেন তাদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, গ্রামীণ উদ্যোক্তা ও ভোক্তাদের ই-কমার্সে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য একটি ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস, অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন, আইওএস অ্যাপ্লিকেশন ও অন্যান্য সফটওয়্যার তৈরি করা হবে। এ ক্ষেত্রে সার্বিক সহযোগিতা করবে বাংলাদেশ ফরেন ট্রেড ইনস্টিটিউট। সারা দেশব্যাপী ‘তথ্য আপা’ প্রকল্পের নেটওয়ার্ককে কাজে লাগিয়ে ই-কমার্সকে প্রত্যন্ত অঞ্চলে তৃণমূল নারীদের দোরগোড়ায় পৌঁছানোর লক্ষ্যে ‘তথ্য আপা’রা উপজেলায় উদ্যোক্তা নির্বাচন, তাদের মোটিভেশন প্রদান ও তাদের পণ্য ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মে উপস্থাপন কাজে সহায়তা করবেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০২১
জিসিজি/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa