ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

'ই-কমার্স' ইট ইস ম্যাজিক ওয়ান: বাণিজ্য সচিব

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২১
'ই-কমার্স' ইট ইস ম্যাজিক ওয়ান: বাণিজ্য সচিব বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন

ঢাকা: পেঁয়াজের দাম কমানো নিয়ে 'চ্যালেঞ্জ' নিয়েছিলাম পেঁয়াজকে সাইজ করবো। ই-কমার্সের জন্য সেটা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দীন।

 

বুধবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সচিবালয়ে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক অনুষ্ঠানে তিনি একথা জানান।  

এ সময় মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব কাজী রওশন আক্তারসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।  

বাণিজ্য সচিব বলেন, 'ই-কমার্স’ ইট ইস ম্যাজিক ওয়ান। আমি যখন ২০১৯ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে প্রথম যোগ দিলাম, সেদিনই পেঁয়াজ নিয়ে ঝামেলা। আমাকে মিডিয়া ফেইস করতে হলো পেঁয়াজ নিয়ে। ওই বছরটা বুঝতে-বুঝতে সময় গেল। এ বছর আমি একটা চ্যালেঞ্জ নিয়েছিলাম, আমি সচিব থাকি আর না থাকি পেঁয়াজকে আমি সাইজ করবো।

তিনি বলেন, এখন কি বলবেন? কারসাজি বলবেন নাকি কি বলবেন? এতো দাম কেন কম, এটাও আবার জবাবদিহি করতে হয়। তো আমি যাবো কোথায়? দাম বাড়লেও জবাবদিহি করতে হয়, কমলেও করতে হয়। কিন্তু কিভাবে কমালাম? ওয়ান অব দ্য সিক্রেট হলো ই-কমার্স। দেখলাম ট্রাক সেলে আমাদের লিমিটেশন আছে। সারা বাংলাদেশে আমাদের সর্বোচ্চ ৩শ’ ট্রাক ছিল ক্যাপাসিটি। আর অনেক জোরাজুরি করে ২শ’ বাড়ানো যায় সারাদেশে। তো মার্কেট হলো কত? ৫শ’ ট্রাক মানে ৫শ’ মার্কেট। আমরা ৫শ’ মার্কেটে যেতে পারি। কিন্তু বাংলাদেশে ৫ লাখের বেশি মার্কেট আছে। তো আমরা তখন চিন্তা করলাম ই-কমার্সে একটু সেট করা যায় কিনা। ই-কমার্সের সংস্থা ই-ক্যাবকে ডাকলাম, রাজি হয়ে গেল। একদিনে এসোপি করা হয়ে গেল।

ড. জাফর উদ্দীন বলেন, আমাকে সাংবাদিকরা অনেকে প্রশ্ন করেন পেঁয়াজের দামতো বেড়ে যাচ্ছে। তখন আমি বললাম কত হলে আপনি খুশি হবেন? বলল ৩০, ৪০ বা ৫০। আমি বললাম ৩০ টাকায় আপনাকে দেব। বাসায় বসে পাবেন স্বস্তির পেঁয়াজ। ই-কমার্সের লিংকটা দিয়ে দেই। বাসায় বসে পেঁয়াজ পান। এভাবেই পেঁয়াজকে জয় করলাম।

উল্লেখ্য, গত দুই বছরে ভারত অভ্যন্তরীণ সরবরাহ সংকট দেখিয়ে পূর্বঘোষণা ছাড়া পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। এরই প্রভাবে দেশীয় বাজারে পণ্যটির দাম হু হু করে বাড়তে থাকে। ২০১৯ সালে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ২৬০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়েছিলো।  

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০২১
জিসিজি/এমআরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa