ঢাকা, শনিবার, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

‘বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা এনেছিলেন বলেই স্বাধীনভাবে ব্যবসা করছি’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৫১ ঘণ্টা, আগস্ট ৭, ২০২২
‘বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা এনেছিলেন বলেই স্বাধীনভাবে ব্যবসা করছি’

ঢাকা: বঙ্গবন্ধু দেশ স্বাধীন করেছিলেন বলেই আমরা স্বাধীনভাবে ব্যবসা করছি। তিনি যখন দেশের হাল ধরেন, তখন যুদ্ধবিধ্বস্ত, বিপর্যস্ত একটি দেশের অর্থনীতির হাল ধরা অনেক কঠিন ছিল।

তার সরকারের ৩ বছর ৭ মাস মেয়াদে এমন কোনো ক্ষেত্র ছিল না, যেখানে তিনি ভূমিকা রাখেননি।

রোববার (৭ অগাস্ট) এফবিসিসিআই অডিটোরিয়ামে ‘বঙ্গবন্ধুর অর্থনীতি ও বাণিজ্য ভাবনা’ শীর্ষক এক সেমিনারে সভাপতির বক্তব্যে এ কথা বলেন এফবিসিসিআই সভাপতি জসিম উদ্দিন।

স্বাগত বক্তব্যে তিনি বলেন, বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়নে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশিত পথে আমরা আজ স্বাধীন, সার্বভৌম, উন্নত দেশে পরিণত হয়েছি।

তিনি বলেন, স্বাধীনতার পূর্বে পশ্চিম পাকিস্তানের উন্নয়নে মোট বাজেটের ৭৫ শতাংশ অর্থ এবং পূর্ব পাকিস্তানে ২৫ শতাংশ অর্থ ব্যয় করা হতো। ফলে দিন-দিন পূর্ব পাকিস্তানের অর্থনৈতিক অবস্থার দিন-দিন অবনতি হয়। পরবর্তী সময়ে দেশের সমৃদ্ধ অর্থনীতি গড়ার লক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু অনেকগুলো পদক্ষেপ নেন। তার আমলেই বাংলাদেশ ডব্লিউটিও (ওয়ার্ল ট্রেড অর্গানাইজেশন) এর সদস্য হয়, জাতিসংঘের সদস্য পদ লাভ করে। তার আমলেই আমদানি নিয়ন্ত্রণে টিসিবি (ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ) গঠন হয়। বাণিজ্য সম্প্রসারণের সুদৃঢ় ভিত্তি তৈরি করেন।

এএফবিসিসিআই সভাপতি আরও বলেন, বর্তমানে তারই পথ ধরে তার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধন করেছেন। তার সুযোগ্য পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয় তথ্য-প্রযুক্তির উন্নয়নের লক্ষ্যে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। আজ এসডিজি অর্জনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। মেট্রোরেল, পদ্মাসেতু, কর্ণফুলী টানেলের মতো উন্নয়ন প্রকল্প তৈরি হয়েছে।

তিনি বলেন, বর্তমানে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাব সারা পৃথিবীতেই পড়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সহযোগিতা করলে আমরা আরও এগিয়ে যাব।

সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান।

সেমিনারে প্যানেল আলোচক হিসেবে আলোচনা করবেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক নির্বাহী পরিচালক এম মাহফুজুর রহমান, ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি রিজওয়ান রহমান, এমসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি নিহাদ কবির, এফবিসিসিআইয়ের প্যানেল উপদেষ্টা ড. মোস্তফা আবিদ খান, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব ও এফবিসিসিআইয়ের প্যানেল উপদেষ্টা শুভাশীষ বসু।

বেঙ্গল গ্রুপের কর্ণধার মোরশেদ আলম, এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন এমপিসহ বিভিন্ন ব্যবসায়ী ও ব্যবসায় সংগঠনের নেতারা উপস্থিত আছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৫ ঘণ্টা, অগাস্ট ০৭, ২০২২
এমকে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa