ঢাকা, শনিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

বিনোদন

আসছে যুদ্ধ ও ভালোবাসার ছবি ‘মেহেরজান’

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮২০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৮, ২০১০
আসছে যুদ্ধ ও ভালোবাসার ছবি ‘মেহেরজান’

‘মেহেরজান’ বীরাঙ্গনা ও যুদ্ধশিশুর কাহিনী। একটি যুদ্ধ-মৃত্যু-ভালোবাসা ও প্রেরণার গল্প।

মুক্তিযুদ্ধের অনেক বছর পর এক যুদ্ধশিশু সারা তার ইতিহাস জানতে আসে মেহেরের কাছে। মেহের তার মা নীলার খালাত বোন। এই জানতে চাওয়া ইতিহাসকে ৩৮ বছর পর নতুন করে ফিরে দেখে মেহের।

একাত্তরের ২৫ মার্চের কালরাতে অনেকের মতো মেহেরও তার পরিবারের সাথে ঢাকা থেকে পালিয়ে তার নানাবাড়িতে পৌঁছে। এই ছবির পটভূমি সেই গ্রাম। সেই গ্রামেই পালিয়ে থাকা এক আহত ও স্বপত্যাগী-যুদ্ধবিরোধী বেলুচ সৈন্যের সাথে প্রেম হয় মেহেরের। অন্যদিকে পাকিস্তানি সৈন্যরাই তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে তার বোন নীলাকে। তবে আর দশটা বাঙালি মেয়ের মতো নীলা ধর্ষিত হওয়া নিয়ে গ্লানিতে না ভুগে চলে যায় যুদ্ধে, নিজের হাতে পাকসেনা খতম করবে বলে।

এই প্রেমের জন্যে পরবর্তীকালে সমাজের কাছ থেকে মেহের যে ধিক্কার পায় তা কলঙ্কের মতো বহন করে সে। সারার উপস্থিতি আর ইতিহাসের পুনর্ব্যাখ্যার মধ্য দিয়েই এত দিন পর সে জীবনের নতুন মানে খুঁজে পায়, গ্লানি আর লজ্জা থেকে মুক্ত হয়।

একই সাথে প্রেম ও ঘৃণার এই বাস্তবতাকে নারীর দৃষ্টিতে তুলে ধরা হয়েছে ‘মেহেরজান’ ছবিতে।

পরিচালক রুবাইয়াত হোসেনের পরিচালনায় এই ছবিতে মেহেরের ভুমিকায় অভিনয় করেছেন জয়া বচ্চন, নানাজান হিসেবে ভিক্টর ব্যানার্জি। মেহেরের প্রেমিক বেলুচ সৈন্য ওয়াসিম খানের ভুমিকায় ওমর রাহিম ও ছোট মেহেরের ভূমিকায় অভিনয় করেছে সায়না আমিন আর বীরাঙ্গনা নীলার ভূমিকায় রিতু সাত্তার।

অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন হুমায়ূন ফরীদি, শর্র্মিলী আহমেদ, খায়রুল আলম সবুজ, আজাদ আবুল কালাম, মনিরা মিঠু , রিফাত চৌধুরী, শতাব্দী ওয়াদুদ, নাসিমা সেলিম, অরুপ রাহী প্রমুখ।

ছবির চিত্র গ্রহণ করেছেন সমীরণ দত্ত। সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন নীল মুখার্জী।

দেশভাঙ্গার অভিঘাত বুকে নিয়ে পাকিস্তানের মানবতাবাদী কবি ফয়েজ আহমেদ ফয়েজ  ১৯৭৪ সালে ঢাকা ভ্রমণ করেছিলেন। বাঙালিদের ওপর পাকিস্তানি সেনাদের বর্বরতা আর নৃশংসতার দৃশ্য দেখে যুদ্ধবিরোধী এই কবির হৃদয় বেদনাতুর হয়ে উঠে। তিনি লেখেন ‘ঢাকা সে ওয়াপসি পার’ । যুদ্ধের গর্ভ থেকে জন্ম নেওয়া ভাঙ্গনের কান্নাজড়ানো এই গজলটি ছবিতে বিশেষভাবে স্থান পেয়েছে।

‘মেহেরজান’ এই মুহূর্তে আছে সেন্সরবোর্ডের ছাড়পত্রের অপেক্ষায়। ছবির নির্মাতা আশা করছেন, এই মাসেই ছাড়পত্র পেয়ে যাবেন। ছবিটি মুক্তি দেওয়ার তারিখ নির্ধারিত হয়েছে আগামী বছরের ২১ জানুয়ারি।

বাংলাদেশ সময় ১৭৩০, ডিসেম্বর ১৮, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa