ঢাকা, সোমবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিনোদন

মমতাই পারবে বাংলার উন্নতি করতে: জয়া

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪২ ঘণ্টা, এপ্রিল ৫, ২০২১
মমতাই পারবে বাংলার উন্নতি করতে: জয়া কথা বলছেন জয়া বচ্চন

কলকাতা: মমতার হয়ে প্রচারে তিন দিনের জন্য রাজ্যে এসেছেন বলিউড ‘শাহেনশাহ’ অমিতাভ বচ্চনের পত্নী জয়া বচ্চন। অভিনেত্রী শহরে থাকবেন ৮ এপ্রিল পর্যন্ত।

 

সোমবার (৫ এপ্রিল) বিকেলে তার নির্বাচন কার্যক্রম শুরু করলেন তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক বৈঠকের মধ্য দিয়ে। জয়াকে বরণ করে নেন তৃণমূল সাংসদ দোলা সেন।

এদিন প্রেস কনফারেন্সের শুরুতেই তিনি বলেন, ‘আমার নাম জয়া বচ্চন। তার আগে আমার নাম ছিল জয়া ভাদুড়ি। আমার বাবার নাম তরুণ ভাদুড়ি। আমরা প্রবাসী বাঙালি, কিন্তু বাঙালি। বাংলায় তৃণমূল কংগ্রেসকে সমর্থন দিয়েছেন আমাদের সমাজবাদী পার্টির হাইকমান্ড অখিলেশ যাদব। ওই দলের রাজ্যসভার সংসদ সদস্য আমি। তার নির্দেশেই আমি মমতাজির জন্য রাজ্যে এসেছি। ’

এর আগে প্রথমেই তিনি বলে নেন, ‘আমি বাংলা, হিন্দি, ইংরেজি ভাষা মিলিয়ে কথা বলবো। এখানে বলে নয়, আমি সব জায়গাই এরকমই করে থাকি। মমতাজির জন্যে আমার ভালোবাসা ও সম্মান। বিজেপির বিরুদ্ধে একা মমতাই লড়াই করছেন সারা ভারতে। সমস্ত প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে লড়াই করছেন একজন মহিলা। মাথা ভাঙছে, পা ভাঙছে কিন্তু ওরা মমতাজির হৃদয় ভাঙতে পারেনি। মমতাজি মুখ্যমন্ত্রী হলে এখানে আরও উন্নতি হবে। আপনাদের জন্য গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষার লড়াই করছেন মমতাই। ’

এরপর রবীন্দ্রনাথের ‘বাংলার মাটি, বাংলার জল’ কবিতাটি তুলে ধরে জয়া বচ্চন বলেন, ‘বাঙালির প্রাণ, বাঙালির মন, বাঙালির ঘরে যত ভাই-বোন, এক হউক, এক হউক, এক হউক হে ভগবান। ’ এই লাইনগুলো আমার সবচেয়ে প্রিয়। মমতাদিকে যারা পছন্দ করেন না, তাদের বলব লজ্জা, লজ্জা। ’

এর থেকে বেশি কিছু বলেননি। তিনি বলেন, ‘কী বলবো ঠিক করে আসেনি। আমাকে অনেক কিছু বলতে বলা হয়েছে। তবে আমি একদিনে সব কিছু বলবো না। আমি এখনো আরও কিছুদিন আছি কলকাতায়। ’

এদিন সন্ধ্যায় টালিগঞ্জ কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী অরূপ বিশ্বাসের হয়ে রোড শো করবেন জয়া। এই কেন্দ্রেই আবার বিজেপির তারকা প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়। রোববার (৪ এপ্রিল) রাতে কলকাতায় নামেন জয়া বচ্চন। জয়া বচ্চন শহরে নামতেই বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান তৃণমূল সংসদ সদস্য ডেরেক ও’ব্রায়েন এবং চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। বিমানবন্দর থেকে বেরোতেই শঙ্খ ও উলুধ্বনিতে বরণ করে নেওয়া হয় জয়াকে।

রাজনৈতিক মহলের মতে, প্রতিপক্ষকে এক ইঞ্চি জমি ছাড়তে নারাজ তৃণমূল সুপ্রিমো। তাই মিঠুনের বিপরীতে আর এক বলিউড স্টারকেই বেছে নিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪২ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৫, ২০২১
ভিএস/জেআইএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa