ঢাকা, রবিবার, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

পশ্চিমবঙ্গে সমবায় ব্যাংকের আওতায় আসছেন যৌনকর্মীরা

কলকাতা করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৪৭ ঘণ্টা, জুলাই ১৬, ২০১০

কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গের সব যৌনকর্মীকে সমবায় ব্যাংকের আওতায় আনার উদ্যোগ নিয়েছে যৌনকর্মীদের সংগঠন ‘দুর্বার’। এর ফলে রাজ্যের সব যৌনকর্মী সমবায় ব্যাংকে টাকা জমানো ও ঋণ সুবিধা পাবেন বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।



দুর্বার-এর সমবায় বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সদস্য শান্তুনু চট্টোপাধ্যায় বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে বলেন, তারা ইতোমধ্যে শিলিগুড়ি ও দিনহাটায় দুটি সমবায় খুলেছেন। শিলিগুড়ি শাখায় ৫০০ জন ও দিনহাটায় ৪৮০ জন সদস্য হয়েছেন। এছাড়া আগামী ৬ মাসের মধ্যে দুর্গাপুর ও বসিরহাটেও শাখা খোলা হবে।

এছাড়া আসানসোল, নদীয়ার শান্তিপুর, খড়গপুর, কাঁথি, ধুলিয়ান, আলিপুরদুয়ার ও বাংলাদেশ সীমান্তের স্থলবন্দর চ্যাংড়াবান্দাতে যৌনকর্মীদের জন্য সমবায় ব্যাংক খোলার কাজ শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে দুর্বার সূত্র।

সূত্র আরও জানিয়েছে, বর্তমানে এসব স্থানে দৈনিক সঞ্চয় প্রকল্প চালু করা হয়েছে। এ প্রকল্পে কেবল যৌনকর্মীরা টাকা জমা ও সংগ্রহ করবেন।

দুর্বারের সমন্বয়ক মহাশ্বেতা ভট্টাচার্য বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডিকে জানান, ‘সমবায় ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে যৌনকর্মীরা জমি কিনছেন, বাড়ি করছেন, সন্তানের লেখাপড়া চালাচ্ছেন। ’

উল্লেখ্য, ২০০১ সালে পশ্চিমবঙ্গে যৌনকর্মীদের জন্য সমবায় ব্যাংক প্রতিষ্ঠার আন্দোলন শুরু করে ‘দুর্বার’। ২০০৯ এর জানুয়ারি মাসে রাজ্যের সমবায় মন্ত্রণালয় তাদের ব্যাংক খোলার অনুমতি দেয়। বর্তমানে সোনাগাছি নামে পরিচিতি কলকাতার ১২/৫ নীলমণি সরকার স্ট্রীটে ‘ঊষা’ নামে দুর্বারের যে সমবায় ব্যাংক রয়েছে তা দণি-পূর্ব এশিয়ার মধে সবচেয়ে বড়। ব্যাংকটিতে বার্ষিক লেনদেনের পরিমাণ এগারো কোটি রুপিরও বেশি। ১৪ হাজার যৌনকর্মী এ ব্যাংকের সদস্য । গত বছর এ ব্যাংক থেকে ২ হাজার ৩২২ যৌনকর্মীকে আড়াই কোটি রুপিরও বেশি ঋণ দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময়: ১১৫৫ ঘণ্টা, জুলাই ১৬, ২০১০


বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa