ঢাকা, বুধবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৭ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

সমরখন্দ গভর্নরের সঙ্গে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের বৈঠক

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৪২ ঘণ্টা, মার্চ ৪, ২০২৪
সমরখন্দ গভর্নরের সঙ্গে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের বৈঠক

ঢাকা: উজবেকিস্তানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম সমরখন্দ রিজিয়নের গভর্নর তুর্দিমভ আর্কিনজনের সঙ্গে তার কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেছেন। এ সময় গভর্নর অফিসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সোমবার (০৪ মার্চ) তাসখন্দের বাংলাদেশ দূতাবাস জানায়, বাংলাদেশ-উজবেকিস্তানের মধ্যে বিদ্যমান ঐতিহাসিক, সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় বন্ধন ও যোগসূত্রের বর্ণনা দিয়ে এ সম্পর্ককে আরও ঘনিষ্ঠতর ও প্রসারিত করতে ঐতিহাসিক সিল্ক রোডের অন্যতম কেন্দ্রস্থল হিসেবে খ্যাত সমরখন্দ অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে পারে বলে রাষ্ট্রদূত মন্তব্য করেন। বিশেষ করে দু’দেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য, সাংস্কৃতিক ও পর্যটন বিকাশে কার্যকরী ও ফলপ্রসূ অবদান রাখতে পারে বলে তিনি যোগ করেন।

বাংলাদেশ ও উজবেকিস্তানের বর্তমান অর্থনৈতিক সহযোগিতার ওপর আলোকপাত করে বাংলাদেশ থেকে তৈরি পোশাক, পাট ও পাটজাত পণ্য ও ওষুধ আমদানি করতে সমরখন্দের ব্যবসায়ী নেতাদের উৎসাহিত করতে রাষ্ট্রদূত গভর্নরকে অনুরোধ করেন। সমরখন্দে ইমাম বুখারীর (রহ:) সমাধিস্থল ও অন্যান্য তাৎপর্যপূর্ণ ও ঐতিহাসিক স্থাপনাসমূহ বাংলাদেশের পর্যটকদের জন্য যেমন আকর্ষণীয়, তেমনি কক্সবাজার সমুদ্রসৈকত, সুন্দরবন এবং শাহজালাল (রহ:) এর মাজার উজবেকিস্তানের ভ্রমণ পিপাসুদের আকৃষ্ট করতে পারে বলে রাষ্ট্রদূত উল্লেখ করেন।

দু’দেশের জনগণের মধ্যকার বিরাজমান বন্ধুত্বপূর্ণ এই সম্পর্ককে আরও মজবুত ও গভীর করতে তিনি সমরখন্দের সঙ্গে বাংলাদেশের অনুরূপ একটি শহরের মধ্যে ‘সিস্টার সিটি’ বিষয়ক একটি সহযোগিতা স্মারক করার ওপর জোর গুরুত্ব আরোপ করেন।

সমরখন্দ রিজিয়নের গভর্নর তুর্দিমভ আর্কিনজন ‘সিস্টার সিটি’ সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার বিষয়ে ইতিবাচক মনোভাব পোষণ করেন। ব্যবসায়িক, সাংস্কৃতিক ও পর্যটন সহযোগিতাকে আরও গতিশীল করতে তিনি রাষ্ট্রদূতকে সর্বাত্মক সহযোগিতা দেওয়ার আশ্বাস দেন। এ প্রেক্ষিতে তিনি বাংলাদেশ থেকে একটি ব্যবসায়িক প্রতিনিধি দল সমরখন্দে পাঠানোর জন্য অনুরোধ করেন। তিনি সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফরের আগ্রহ প্রকাশ করেন।

রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম পৃথক পৃথকভাবে সমরখন্দে অবস্থিত সমরখন্দ স্টেট ইউনিভার্সিটির রেক্টর ড. খালমুরাদভ রুস্তম ইব্রাগিমভিছ এবং সমরখন্দ স্টেট আর্কিটেকচারাল  ও সিভিল ইনিঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউটর রেক্টর এরকান কাকিয়ার সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে  বাংলাদেশ ও উজবেকিস্তানের মধ্যে শিক্ষা সহযোগিতা, বিশেষ করে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও গবেষণালব্ধ জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা বিনিময়কে আরও সহজ, সরল ও সাবলীল করতে বিভিন্ন প্রক্রিয়া ও কৌশল নিয়ে মত বিনিময় করেন।

বাংলাদেশ সময়: ২২৪০ ঘণ্টা, মার্চ ০৪, ২০২৪
টিআর/এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad