ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ মে ২০২২, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

কুড়িগ্রামে বিদ্যালয়ের দেয়াল ধসে শ্রমিকের মৃত্যু

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৬, ২০২২
কুড়িগ্রামে বিদ্যালয়ের দেয়াল ধসে শ্রমিকের মৃত্যু কুড়িগ্রামে বিদ্যালয়ের দেয়াল ধসে শ্রমিকের মৃত্যু

কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলায় বিদ্যালয়ের দেয়াল চাপা পড়ে আবু হানিফ (৩৫) নামে এক শ্রমিকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আরও দু’জন আহত হয়েছেন।

বুধবার (২৬ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের ঝগড়ারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ঝুঁকিপূর্ণ একটি টিনশেড ভবন ভাঙার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে।  

নিহত আবু হানিফ ঝগড়ারচর গ্রামের মৃত আজিবুর রহমানের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রৌমারী উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের ঝগড়ারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দীর্ঘদিনের পরিত্যক্ত একটি টিনশেড ভবনের দেয়াল ভাঙার কাজ করছিলেন কয়েকজন শ্রমিক। এ সময় আকস্মিকভাবে দেয়ালের একটি অংশ ধসে পড়লে হানিফ নিচে চাপা পড়েন। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের দপ্তরি জাহিদ হাসান ও শ্রমিক ফজলুল হক গুরুতর আহত হলে তাদের উদ্ধার করে রৌমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
ঝগড়াচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শামছুল আলম বাংলানিউজকে জানান, পরিত্যক্ত টিনশেড ভবনের দেয়াল ভাঙার সময় দেয়ালে চাপা পড়ে এক শ্রমিকের মৃত্যু এবং দুইজন আহত হয়েছেন। ম্যানেজিং কমিটির রেজুলেশন অনুযায়ী পরিত্যক্ত টিনশেড ভবনের দেয়াল ভাঙার কাজ করা হচ্ছিলো।  

রৌমারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (টিও) মো. নজরুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, পরিত্যক্ত ভবন ভাঙার কোনো অনুমতি দেওয়া হয়নি। হতাহতের বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আল ইমরান বাংলানিউজকে জানান, শুনেছি বিদ্যালয়টির টিনশেড ভবনটি ভাঙার সময় দেয়ালে চাপা পড়ে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোন্তাছের বিল্লাহ বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে জানান, নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৬, ২০২২
এফইএস/এমআরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa