ঢাকা, শনিবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৮ মে ২০২২, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

সুন্দরবনে উদ্ধার হওয়া মৃত বাঘের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৪৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৯, ২০২২
সুন্দরবনে উদ্ধার হওয়া মৃত বাঘের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

বাগেরহাট: সুন্দরবনের খাল থেকে উদ্ধার হওয়া মৃত বাঘের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে।

শনিবার (২৯ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জ অফিসে বাঘটির ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়।

সুন্দরবনের শরনখোলা রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. সামসুল আরেফিনের নেতৃত্বে শরণখোলা উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা মো. তোফাজ্জেল হোসেন ও বনবিভাগের ওয়াইল্ড লাইফের সদস্যরা মৃত বাঘটি পরীক্ষা নিরীক্ষা করেন।

এর আগে শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) বিকেলে বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের দুবলার চর সংলগ্ন রুপার খাল থেকে উদ্ধার করে বনবিভাগের স্মার্ট টিমের সদস্যরা। ওই রাতেই বাঘের মরদেহ শরণখোলা রেঞ্জ অফিসে নিয়ে আসেন বনরক্ষীরা। বার্ধক্যজনিত কারনে বাঘটির মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করছে বনবিভাগ।

ময়নাতদন্ত শেষে শরণখোলা উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. তোফাজ্জল হোসেন বলেন, ৯ফুট লম্বা বাঘটির বয়স ১৬ থেকে ১৭ বছর হবে। বাঘটির শরীরে কোন প্রকার আঘাতের চিহ্ন ছিল না। ধারণা করছি বাঘটি বার্ধক্যজনিত কারণে মারা যেতে পারে। টেস্টের জন্য ল্যাবে পাঠাতে বাঘের চামরা, দাঁত, মাংস, হৃদপিণ্ডের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আলামতগুলো বনবিভাগের ঢাকা ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হবে। ল্যাবের রিপোর্টে বাঘটির মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা(ডিএফও) মোহাম্মাদ বেলায়েত হোসেন বলেন, শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) বিকেলে পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের দুবলার চর সংলগ্ন রুপার খাল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। বাঘটির মরদেহ বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্র করমজলে পাঠানো হয়েছে। এটি মাটি চাপা দেওয়া হবে না সংরক্ষণ করা হবে তা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করবে।

এর আগে ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে এবং ২০২০ সালের মার্চ মাসে দুটি বাঘের মৃত দেহ উদ্ধার করে বনবিভাগ। এসব বাঘ বার্ধক্যজনিত কারণে মারা গেছে বলে তদন্ত রিপোর্ট জানা যায়।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৯, ২০২২
এনএইচআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa