ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ আষাঢ় ১৪২৯, ০৫ জুলাই ২০২২, ০৫ জিলহজ ১৪৪৩

জাতীয়

চাল আত্মসাৎ, ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৩ জনের নামে দুদকের মামলা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৫৪ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০২২
চাল আত্মসাৎ, ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৩ জনের নামে দুদকের মামলা

নড়াইল: নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলায় ভিজিএফ’এর ১২০ বস্তা চাল আত্মসাতের ঘটনায় কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. মতিয়ার রহমানসহ ৩ জনের নামে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন।

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) যশোর সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতে দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয় যশোরের সহকারী পরিচালক মো. মোশাররফ হোসেন মামলাটি করেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৯ সালের ৮ আগষ্ট ঈদুল আযহায় ২৭৭০ জন গরীব মানুষের মধ্যে বিতরণের জন্য ৪১.৫ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ পায় কাশিপুর ইউনিয়ন। ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান ডিও গ্রহণ করে ২৪ মেট্রিক টন  চাল উত্তোলন করেন। জায়গা না থাকার অযুহাতে বাকি ১৭.৫৫০ মেট্রিক টন চাল লোহাগড়া খাদ্যগুদামে রাখেন। ৯ আগস্ট দুপুরে খাদ্যগুদাম থেকে ব্যবসায়ী মো. শাহাবুর রহমান এর সহায়তায় ৩.৬ মেট্রিক টন  চাল গুদাম থেকে তুলে বিক্রি করা হয়। ঐ দিন বিকালে নড়াইল-যশোর সড়কের সারুলিয়া চায়না প্রজেক্টের সামনে থেকে পুলিশ চুরি হওয়া চাল নসিমনসহ আটক করে। প্রতি বস্তায় ৩০ কেজি করে ১২০ বস্তা চাল আটক করে দুদকে মামলা করে।

২০১৯ সালের ৩.৬ মেট্রিক টন চাল বিতরণ না করে আত্মসাৎ এর ঘটনা প্রমাণিত হওয়ায় তৎকালীন লোহাগড়া খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা (বর্তমান ঝিনাইদহ খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) মো. কামরান হোসেন, শারুলিয়া গ্রামের চাউল ব্যবসায়ী মো. শাহাবুর রহমান এবং কাশিপুর ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান এর নামে মামলা করা হয়।

দুদকের এ মামলা বিষয়ে কাশিপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. মতিয়ার রহমান বাংলানিউজকে বলেন, গোডাউন থেকে টিআর এর মাল বিক্রি করা হয়েছিল। যেগুলো কিনেছে চাউল ব্যবসায়ী সাহাবুর। এ পণ্যতো আমার না, এটা আমার বিরুদ্ধে একটা যড়যন্ত্র।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৫৪ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০২২
এনএইচআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa