ঢাকা, বুধবার, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ০৬ জুলাই ২০২২, ০৬ জিলহজ ১৪৪৩

জাতীয়

ধান কেটে ফেরার পথে পদ্মায় ট্রলার ডুবে নিখোঁজ ২

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৫১ ঘণ্টা, মে ২২, ২০২২
ধান কেটে ফেরার পথে পদ্মায় ট্রলার ডুবে নিখোঁজ ২

মাদারীপুর: মুন্সীগঞ্জের বিক্রমপুর থেকে ধান কেটে ফেরার সময় ঝড়ের কবলে পড়ে শিবচরের ১৩ শ্রমিকসহ একটি ট্রলার মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া সংলগ্ন পদ্মা নদীতে ডুবে গেছে। এসময় অন্য একটি ট্রলার ১১ জন শ্রমিককে উদ্ধার করলেও নিখোঁজ রয়েছেন দুইজন।

 

শনিবার (২১ মে) ভোরে হঠাৎ কালবৈশাখী ঝড় শুরু হলে ট্রলারটি ডুবে যায়। বিকেল পর্যন্ত নিখোঁজ শ্রমিকদের সন্ধান করতে পারেনি তাদের পরিবার। একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তিকে হারিয়ে শোকে মাতম করছেন পরিবারের সদস্যরা। ট্রলারটির ১৩ জন শ্রমিকের সবার বাড়ি শিবচরে।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত ২০ রমজানে শিবচর উপজেলার সন্ন্যাসীরচর ইউনিয়নের রাজারচর গ্রামের কৃষক দাদন মাদবর (৩২) , হেলাল ফকিরসহ (৪২) ১৬ জন শ্রমিকের একটি দল ধান কাটতে মুন্সিগঞ্জের বিক্রমপুর এলাকার একটি বিলে যায়। ধান কাটার কাজ শেষ হওয়ার আগেই সম্প্রতি তিনজন বাড়ি ফিরে আসে। দাদন মাদবর, হেলাল ফকিরসহ বাকি ১৩ জন কাজ শেষ করে শুক্রবার (২০ মে) রাতে বিক্রমপুর থেকে ট্রলার নিয়ে শিবচরের উদ্দেশে রওনা দেয়। শনিবার (২১ মে) সকালে ট্রলারটি মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাট সংলগ্ন মাঝ পদ্মায় এলে ঝড়ো বাতাসের কবলে পড়ে। এসময় বাতাসের ঝাপটায় ট্রলারটি ডুবে যায়। কাছাকাছি থাকা অন্য একটি ট্রলার এগিয়ে এসে ১১ জন শ্রমিককে উদ্ধার করে। তবে প্রবল ঢেউয়ে দাদন মাদবর ও হেলাল ফকির ভেসে যাওয়ায় তারা নিখোঁজ রয়েছে বলে অন্যান্য শ্রমিকরা জানিয়েছে।  

এদিকে পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তিকে হারিয়ে নিখোঁজদের পরিবারে বইছে শোকের মাতম। নিখোঁজ দাদন মাদবর রাজারচর গ্রামের শফি মাদবরের ছেলে এবং নিখোঁজ হেলাল ফকির একই গ্রামের আব্দুল মান্নান ফকিরের ছেলে।

উদ্ধার হওয়া বাবলু মাদবর বলেন, 'আমার ভাই দাদনসহ আমরা ১৩ জন ট্রলার নিয়ে আসছিলাম। মাঝ পদ্মায় ঝড় শুরু হলে ট্রলারটি ডুবে যায়। আমরা ১১ জন উদ্ধার হলেও আমার ভাইসহ দুইজন নিখোঁজ রয়েছে। '

উদ্ধার হওয়া আরেক শ্রমিক বলেন, বাতাস শুরু হওয়ার পর কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই প্রচণ্ড ঢেউ এসে আমাদের ট্রলারটি ডুবিয়ে দেয়। প্রাণ বাঁচাতে আমরা সবাই হাবুডুবু খাচ্ছিলাম। এমন সময় অন্য একটি ট্রলার এসে আমাদের ১১ জনকে উদ্ধার করে। কিন্তু ঢেউয়ের তোড়ে ভেসে যাওয়ায় দুজন নিখোঁজ রয়েছে।

কাঁঠালবাড়ী নৌপুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাহানুর আলী জানান, ঝড়ের সময় একটি ট্রলার ডুবির সংবাদ পাই। তবে ঘটনাটি আমাদের শিবচরের অংশে ছিল না। তারপরও আমরা খোঁজ-খবর রেখেছি। শ্রমিকদের বাড়ি শিবচরের সন্যাসীরচর এলাকায় বলে জানতে পেরেছি। '

বাংলাদেশ সময়: ০৯৪৮ ঘণ্টা, মে ২২, ২০২২
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa