ঢাকা, সোমবার, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাতীয়

রাতের আঁধারে ঘর তুলে জমি দখলের অভিযোগ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮২৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩, ২০২২
রাতের আঁধারে ঘর তুলে জমি দখলের অভিযোগ

বরগুনা: বরগুনার তালতলী উপজেলার নীশানবাড়িয়া ইউনিয়নের মেনীপাড়া গ্রামে রাতের আঁধারে ঘর তুলে জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে রাজু গং ও তার লোকজনের বিরুদ্ধে।

সোমবার (০৩ অক্টোবর) ভুক্তভোগী সিদ্দিকুর রহমান এ ঘটনায় তালতলী থানায় অভিযোগ করেন।

থানায় অভিযোগের পর থেকে জমি দখলকারীদের হামলার আতঙ্কে সময় পার করছেন ভুক্তভোগী পরিবারটি।

ভুক্তভোগী মনোজা সুলতানা লায়লা ও সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ৪১ নম্বর ছোট নীশানবাড়ীয়া মৌজার ১৩ একর ২৬ শতাংশ থেকে তারা ২ একর ৬৬ শতাংশ জমি কেনেন। সেখান থেকে ১ একর ৩৩ শতাংশ বিক্রি করেছি ও ১ একর ৩৩ শতাংশের জন্য বায়না নিয়েছি। এ কথা শোনার পরে স্থানীয় কামাল হোসেনের ছেলে রাজু গং আমার জমি দখলে নেওয়ার জন্য বিভিন্নভাবে চেষ্টা চালান ও জাল দলিল তৈরি করে জমিটি দখলে নিতে চান।

তারা আরও বলেন, জমিটির বয়স প্রায় ৫২ বছর। ২০১৬ সালে স্থানীয় শাহজাহান খলিফা গং এর কাছ থেকে আমরা জমিটি কিনে নেই। বর্তমানে আমরা ময়মনসিংহের স্থানীয় বাসিন্দা। এ সুযোগে রাজু গং তার দলবল নিয়ে ২০২০-২১ সালে অবৈধভাবে ওই জমিতে ইটের ভাটা নির্মাণ করেন। এ নেয়ে পরিবেশ অধিদপ্তর অভিযান পরিচালনা করে তা বন্ধ করে দেওয়া হয়।  

তারা অভিযোগ করেন, গত তিন মাস ধরে দখলদার রাজু, কামাল, মোস্তফা মেম্বার, চুন্নু মৃধা ও শহিদুল ডাক্তারসহ আরও ২০ থেকে ২৫ জন মিলে ওই জমিতে অবৈধভাবে রাতের আধারে ঘর নির্মাণের চেষ্টা করে আসছিলেন। অবশেষে সোমবার রাতে আমাদের অনুপস্থিতিতে তারা সেখানে তিনটি ঘর তোলেন। তাদের হাত থেকে জমিটি রক্ষা করতে তালতলী থানায় একাধিকবার জিডি করা হয়েছে এবং আমতলী ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে মামলা করা হলেও এখনও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

এদিকে অভিযুক্ত রাজু গং রাতে ঘর উঠানোর বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, আমার জায়গাতেই আমি ঘর তুলেছি।

তালতলী থানার (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন তপু বাংলানিউজকে বলেন, এ বিষয়ে সিদ্দিকুর রহমানের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৩, ২০২২
এফআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa