ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৫ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

কাউনিয়ায় ১৬ মামলার আসামি গ্রেফতার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮১৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২২
কাউনিয়ায় ১৬ মামলার আসামি গ্রেফতার গ্রেফতাররা: ছবি বাংলানিউজ

রংপুর: রংপুরের কাউনিয়ায় অটোরিকশা চোর চক্রের হোতা সাজু আহম্মেদ পায়েলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার (২৭ নভেম্বর) রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেন রংপুর জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (সি-সার্কেল) আশরাফুল আলম পলাশ।

 এ সময় বিপুল পরিমাণ চোরাই মালামাল উদ্ধার করা হয়।

এর আগে গত শনিবার উপজেলার টেপামধুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতার সাজু আহম্মেদ পায়েল জেলার কাউনিয়া উপজেলার রাজিব গ্রামের আব্দুল আউয়াল মিয়ার ছেলে।

মামলার বিবরণ ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ২৩ নভেম্বর লালমনিরহাট জেলার বড়বাড়ী এলাকা থেকে জিয়ারত হোসেন নামে একজনের অটোরিকশা কৌশলে ভাড়া নেয় সাজু ও তার দুই সহযোগী।

পরে তারা লালমনিরহাট জেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে কাউনিয়ার বেইলী ব্রীজ যাওয়ার কথা বলে ওই দিন সন্ধ্যায় হলদিবাড়ি রেল গেট নামকস্থানে ইট ভাটার সামনে  নির্জন রাস্তায় নিয়ে যায়।

সেখানে অটোরিকশার চালক প্রাকৃতিক কার্য সারার জন্য তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি অটোরিকশায় রেখে গেলে সুযোগ বুঝে আসামিরা অটোরিকশাটি চুরি করে নিয়ে যায়।

পরবর্তীতে ভুক্তভোগীর অভিযোগের ভিত্তিতে গত ২৬ নভেম্বর তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় কাউনিয়া থানা পুলিশ টেপামধুপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে চোর চক্রের হোতা সাজু আহম্মেদ পায়েলকে গ্রেফতার করে।  

এসময় তার কাছ থেকে অটো চালকের চুরি যাওয়া মোবাইল ফোনটি উদ্ধারসহ তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে দুইজন সহযোগীর আতিকুর ও আশরাফুলকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পরে তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে চুরি হওয়া অটোরিকশাটির খণ্ডিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এ সময় নুরুন্নবী নামে সক্রিয় সদস্যের কাছে থাকা চোরাই অটোরিকশা বিক্রির ২৮ হাজার ১০৫ টাকা উদ্ধার করা হয়।  

গ্রেফতার সবাইকে নিয়ে টেপামধুপুর বাজারস্থ নুরুন্নবীর দোকানে অভিযান চালিয়ে ওই চুরি যাওয়া অটোরিকশার ১ টি মোটর ও ৫টি ব্যাটারি উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় কাউনিয়া থানার মামলা করা হলে আসামিদের গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হয়। গ্রেফতার নুরুন্নবী আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন বলে পুলিশ জানায়।

পায়েলের বিরুদ্ধে কাউনিয়াসহ একাধক থানায় ১৬টি মামলা রয়েছে। এরমধ্যে মধ্যে ৪টি চুরি, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ১টি ও সরকারি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা (ছদ্মবেশ ধারণ) পরিচয়ে অপরাধে ১১টি মামলা।

রংপুর জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (সি সার্কেল) আশরাফুল আলম পলাশ জানান, আসামি সাজু আহমেদ পায়েলকে কাউনিয়া থানা পুলিশ এর আগেও বিভিন্ন অপরাধে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করেছিল। তিনি একজন পেশাদার চোর এবং অপরাধ করে দ্রুত গা ঢাকা দেয়। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় তাকে গ্রেফতারসহ চক্রের বাকিদের ধরার জন্য অভিযান অব্যাহত আছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৮১৬ ঘণ্টা. নভেম্বর ২৮, ২০২২
জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa