ঢাকা, বুধবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রাজনীতি

ব্যক্তিগত আক্রমণতো বিএনপি করছে না: রিজভী

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫৫ ঘণ্টা, মার্চ ১৫, ২০২১
ব্যক্তিগত আক্রমণতো বিএনপি করছে না: রিজভী

ঢাকা: আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি ব্যক্তিগত আক্রমণ করছে ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের জবাবে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘ব্যক্তিগত আক্রমণতো বিএনপি করছে না।

সোমবার (১৫ মার্চ) দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম আয়োজিত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ সব অসুস্থ নেতাকর্মীদের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া মাহফিলের আগে তিনি এ কথা বলেন।

রিজভী বলেন, আমরা কেনো ব্যক্তিগত আক্রমণ করবো?  আপনি ও আপনার ছোটভাই যা বলছেন তাতো গণমাধ্যম বলছে, এলাকার লোকরা বলছে, বড় বড় করে হেডলাইন হচ্ছে। নিজেদের লজ্জা ঢাকতে ‌‘উদোর পিন্ডি বুদোর ঘাড়ে’ চাপানোর চেষ্টা করছেন।

তিনি বলেন, আপনার ছোটভাই বলছে বেগমগঞ্জে অস্থিতিশীল পরিস্থিতির জন্য আপনি দায়ী। কোম্পানীগঞ্জের জন্য দায়ী তার ভাবি। এ যে গৃহ বিবাদ সেটাও পত্রিকায় এসেছে। আপনার এলাকায় কী ঘটছে পত্রপত্রিকায় আপনি পড়েন না? আপনার ভাই কি বলছে, আপনার আওয়ামী লীগের নেতারা কী বলছে?

মরে গেলেও করোনার টিকা নেবেন দাবি করে রিজভী বলেন, করোনা টিকার ব্যাপারে আমরা এমনি এমনি বিরোধিতা করিনি। আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলেছে, বাংলাদেশে-ভারত যে টিকা পাঠাচ্ছে সেটা ট্রায়াল করার জন্য পাঠাচ্ছে। আমাকে অনেক সাংবাদিক জিজ্ঞেস করেছেন, আপনি টিকা নেবেন কিনা? আমি বলেছি ন্যায় সঙ্গতভাবে আমি যে টিকার বিরোধিতা করেছি বাঁচি কিংবা মরি ওই টিকা আমার শরীরে প্রবেশ করতে দেবো না।

ঢাকা দক্ষিণের মেয়র শেখ তাপসের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, মেয়র হয়েছে ভোট ছাড়া তার কথাবার্তা দেখুন। একজন ব্যারিস্টার ছেলে তার কথাবার্তাতো একটু মার্জিত হবে। কেমন যেনো ধরবে, মারবে, কেটে ফেলবো তার কথাবার্তা এ ধরনের। তার ফলাফল বহিঃপ্রকাশ দেখেন। তিনি গোপালগঞ্জ থেকে আসার সময় ফেরিতে দু'জন লোক পুলিশের অনুমতিতে উঠেছে। তার সিকিউরিটি যারা ছিলেন তারা তাদের মেরে মাথা ফাটিয়ে দিয়েছে।

তিনি বলেন, যারা জনগণের ভোটে মেয়র হয় না তারা হয় বেপরোয়া, জমিদার। এ দেশটা কী আপনাদের জমিদারি? ফেরি কী আপনাদের ব্যক্তিগত যে আপনি ছাড়া আর কেউ উঠতে পারবে না? আর উঠলে পরে পরিনাম হবে রক্তাক্ত হওয়া।

আয়োজক সংগঠনের সদস্য ও বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপুর সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট নিপুন রায় চৌধুরীর সঞ্চালনায় দোয়া মাহফিলে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য দেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪৪ ঘণ্টা, মার্চ ১৫, ২০২১
এমএইচ/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa