ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জানুয়ারি ২০২২, ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

রাজনীতি

নৌকার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে: আইভী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৫৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৯, ২০২১
নৌকার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে: আইভী মেয়র আইভীকে সমর্থন জানিয়ে জেলা আওয়ামী লীগ-এর সভা

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডাঃ সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, যে নৌকা আমার হাতে প্রধানমন্ত্রী তুলে দিয়েছেন তার বিরুদ্ধেও ষড়যন্ত্র হচ্ছে। প্রার্থী খোঁজা হচ্ছে, কীভাবে নির্বাচনকে বানচাল করা যায়।

ইনশাআল্লাহ তারা পারবে না। আমাদের অস্থির করার জন্য তারা এগুলো করছে। তাদের বলবো মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কথা চিন্তা করে দেখুন। তার প্রার্থীর পক্ষে থাকবেন না নিজেদের অস্তিত্ব বজায় রাখার চিন্তা করবেন।  

বুধবার (৮ ডিসেম্বর) মেয়র আইভীকে সমর্থন জানিয়ে এক সভার আয়োজন করে জেলা আওয়ামী লীগ। সেখানে নিজের বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

মেয়র বলেন, আমি সবসময় আপনাের সঙ্গে মিলে মিশে কাজ করার চেষ্টা করেছি। নেত্রী আমাকে এর আগেও নৌকা দিয়েছে আপনারা সমর্থন দিয়েছিলেন, এবারও দিয়েছে। আপনারা নেত্রীর কথা মেনে নিয়েই আমার জন্য কাজ করছেন। অর্থাৎ আপনারা নেত্রীর জন্যেই কাজ করছেন। যারা এ সুযোগটা নিল না আমি মনে করি তারা দল ও নেত্রীর প্রতি আস্থা প্রকাশ করলেন না। আমাদের দল যাকে মনোনীত করবে আমরা তার পাশেই থাকবো।  

তিনি বলেন, আমাদের হাই কাকা কথা বলতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে গিয়েছেন কারণ এমপি বাবু যখন তার চেয়ারম্যানদের পরিচয় করিয়ে দিচ্ছিলেন তখন বলছিলেন এরা নৌকায় পাশ করেছে। সেখানে হাই সাহেব বলতে পারলেন না এতগুলো ইউনিয়নে নৌকা পাশ করেছে। বরং সেখানে নৌকাকে দাবিয়ে রেখে লাঙলকে জিতানো হয়েছে। এর চেয়ে বড় কষ্ট নেই। আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য হয়েও তারা লাঙলকে নারায়ণগঞ্জে পাস করাচ্ছে। মধ্যরাতে নাটকীয় ভাবে কাজিমুদ্দিনকে পরাজিত করে লাঙলকে পাশ করানো হয়েছে। এটা অত্যন্ত লজ্জাজনক ব্যাপার।  

তিনি আরও বলেন, বাড়াবাড়ি ভালো না, আপনারা দেখেছেন আমাদের প্রতিমন্ত্রীর অবস্থা কী হয়েছে। দলের প্রতি সবসময় অনুগত ছিলাম, থাকবো। একটি মহল বহু চেষ্টা করেছে আমাকে জামায়াত-বিএনপি বানাতে। আমার বাবা আলী আহমদ চুনকাকে নিয়ে তারা অডিও ক্যাসেটও বের করেছিল, কিন্তু কোন লাভ হয়নি। আমার বাবা জীবনের শেষ পর্যন্ত এ দলের প্রতি নিবেদিত ছিল। আমিও যেন জয় বাংলা বলেই মৃত্যুবরণ করি।  

আইভী বলেন, আমাদের একটাই ঠিকানা। আমাদের শেষ ঠিকানা বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। আপনারা সকলে নৌকার জন্য কাজ করে নৌকাকে বিজয়ী করবেন।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামীলীগ একটা অনেক বড় দল এখানে মনমালিন্য থাকতে পারে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা থাকতে পারে তবে আমরা সবাই এক আছি বলে আমার বিশ্বাস। আমরা আগামী ১৫ তারিখ আমার মনোনয়ন পত্র জমা দেব। তারপর আমরা বিধি অনুযায়ী কাজ শুরু করবো। এর আগ পর্যন্ত আমরা আচরণবিধি মেনে কাজ করবো বলে আমি আশা করি।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু, তারাব পৌরসভার মেয়র হাসিনা গাজী, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সদস্য অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান দিপু, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাই, মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জি এম আরাফাত প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়:০১৫৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৯, ২০২১
এনএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa