ঢাকা, রবিবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ জুলাই ২০২২, ০২ জিলহজ ১৪৪৩

রাজনীতি

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচন 

সরে দাঁড়ালেন আ. লীগের ‘বিদ্রোহী’ মেয়রপ্রার্থী ইমরান

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০৩ ঘণ্টা, মে ২৬, ২০২২
সরে দাঁড়ালেন আ. লীগের ‘বিদ্রোহী’ মেয়রপ্রার্থী ইমরান ছবি: বাংলানিউজ

কুমিল্লা: কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের মেয়র পদপ্রার্থী আরফানুল হক রিফাতকে সমর্থন দিয়ে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেছেন আওয়ামী লীগ নেতা মাসুদ পারভেজ খান ইমরান।  

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) বিকেল ৩টায় কুমিল্লা চেম্বার অব কমার্সের অডিটরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেন ক্ষমতাসীন দলের বিদ্রোহী এই মেয়রপ্রার্থী।

তিনি জানান, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।  

মাসুদ পারভেজ খান ইমরান কুমিল্লা আওয়ামী লীগের প্রয়াত নেতা আফজল খানের ছেলে। তিনি প্রার্থীতা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে উপস্থিত নেতাকর্মীরা ‘না না’ বলে এই ঘোষণার বিরোধিতা করেন। পরে তিনি উত্তেজিত নেতাকর্মীদের শান্ত করেন।

ইমরান বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আমি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালাম। আমার নেতাকর্মীদের কারণে ও কুমিল্লার ২৭টি ওয়ার্ডের মানুষের দিকে চেয়ে নির্বাচনে এসেছিলাম। কারণ তারা আওয়ামী লীগের কিছু লোকের কারণে অতিষ্ঠ হয়ে গেছে। নির্বাচনের জন্য আমার সব ধরনের প্রস্তুতি ছিল। কিন্তু আমরা সবাই বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার রাজনীতি করি। আমরা তার নৌকার বিরুদ্ধে যেতে পারি না।  

দলীয় প্রধান শেখ হাসিনার নির্দেশ অমান্য করার সাহস নেই উল্লেখ করে মাসুদ পারভেজ খান ইমরান বলেন, নেত্রীর নির্দেশে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালাম। আমি আমার সকল নেতাকর্মীকে বলব আপনারা নৌকার পক্ষে কাজ শুরু করেন। আমিও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে নৌকা উপহার দিতে কাজ শুরু করছি। নৌকা কোনো ব্যক্তির না। নৌকা আমাদের বঙ্গবন্ধুর প্রতীক, নৌকা শেখ হাসিনার প্রতীক।  

আওয়ামী লীগের মনোনিত মেয়রপ্রার্থীকে ইঙ্গিত করে ইমরান আক্ষেপ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, যারা নৌকা প্রতীক পেয়েছে তারা আমাদের কোনো নেতাকর্মীকে নির্বাচন পরিচালনা কমিটিতে রাখেনি। আমরা স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই, তারা আমাকে ডাকুক বা না ডাকুক আমরা নৌকার পক্ষেই মাঠে আছি।

আওয়ামী লীগ নেতা ইমরান বলেন, আমার বাবা ষাটের দশক থেকে কুমিল্লায় আওয়ামী লীগকে ধরে রেখেছেন। অথচ আওয়ামী লীগের এক নেতা বিরোধিতা করে ২০১২ সালের সিটি নির্বাচনে আমার বাবাকে এবং ২০১৭ সালে আমার বোনকে হারিয়ে দেয়। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন কুমিল্লায় সুস্থ পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে তারা কাজ করবেন।  

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৯ ঘণ্টা, মে ২৬, ২০২২
এসএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa