ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৬ আগস্ট ২০২২, ১৭ মহররম ১৪৪৪

রাজনীতি

‘নেত্রীর নির্দেশ অমান্য করে পদ্মা সেতু পার হবেন না’

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৮ ঘণ্টা, জুন ২৬, ২০২২
‘নেত্রীর নির্দেশ অমান্য করে পদ্মা সেতু পার হবেন না’

ঢাকা: আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শাজাহান খান বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ‘দয়া করে আপনারা পদ্মা সেতু পার হবেন না। আপনাদের নেত্রীর নির্দেশ, তার নির্দেশ অমান্য করবেন না।



রোববার (২৬ জুন) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে আগামী ২০২২-২৩ অর্থ বছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে শাজাহান খান এ কথা বলেন। এ সময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন।

শাজাহান খান বলেন, আমি আজ আনন্দে আত্মহারা। আজ আমি মাদারীপুর থেকে রওয়ানা দিয়ে দুই ঘণ্টায় ঢাকায় এসেছি। আগে ৫ থেকে ৬ ঘণ্টা সময় লাগতো। দক্ষিণ পশ্চিমা অঞ্চলের মানুষকে নদী পাড়ি দিয়ে ঢাকা আসতে অনেক সময় ১০ থেকে ১২ ঘণ্টা সময় লাগতো। ট্রাক পার হতে কখনও কখনও ৮, ১০, ১৫ দিন করতে হয়েছে। শাকসবজি ফলমূল পচে যেতো। বছরের পর বছর মানুষকে এই দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। আমরা দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার মানুষ দীর্ঘ দিন ধরে আমাদের এই দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। এই পদ্মাসেতুর উদ্বোধন এবং আওয়ামী লীগের জনসভায় যোগ দিতে আমি দেখলাম এই অঞ্চলের মানুষ আনন্দে আত্মাহারা হয়ে আসছে আর আসছে। কত মানুষ যে এসেছে তা বলে শেষ করা যাবে না। আমাদের ত্রাতা হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি না থাকলে এই পদ্মাসেতু হতো না, আমাদের এই দুর্ভোগ থেকে মুক্তি আসতো না। আমি পদ্মা নদী পার হয়েছি, সময় লেগেছে মাত্র ৫ মিনিট। পদ্মাসেতু দিয়ে পর হওয়ার সময় আমি নদীর দিকে অনেক সময় তাকিয়ে ছিলাম। কত মানুষের যে শলিল সমাধি ঘটেছে এই নদীতে।

তিনি বলেন, বিএনপির আমলেতখনকার যোগাযোগ মন্ত্রী অলি আহমেদ বলেছিলেন তারা পদ্মাসেতুর কাজ শুরু করবেন, কিন্তু তারা করেনি। তাদের কত মেয়াদ গেল তারা পারেননি। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে ২০০১ সালে পদ্মাসেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন। আজ শেখ হাসিনা প্রমাণ করেছেন আমরা পারি। পদ্মাসেতুর যখন নির্মাণ কাজ চলছিল তখন খালেদা জিয়া বলেছিলেন আওয়ামী লীগ সরকার পদ্মাসেতু তৈরি করতে পারবে না। জোড়াতালি দিয়ে বানানো হচ্ছে। পদ্মাসেতুতে উঠতে রিস্ক আছে। আপনারা কেউ পদ্মাসেতুতে উঠবেন না। বিএনপির নেতারা এখানে আছেন, দয়া করে আপনারা পদ্মাসেতু পার হবেন না। আপনাদের নেত্রীর নির্দেশ, নেত্রীর নির্দেশ অমান্য করবেন না। আপনাদের জন্য নৌকা রেখে দোবা। এই নৌকা স্বাধীনতা দিয়েছিল। যারা ৭৫ এর হাতিয়ার গর্জে উঠুক আরেক বার স্লোগান দেয় তাদের গ্রেফতার করতে হবে, তাদের আইনের আওতায় আনতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৫ ঘণ্টা, জুন ২৬, ২০২২
এসকে/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa