ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আন্তর্জাতিক

‘লাইগার’ উৎপাদন করায় জরিমানা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৫৪৬ ঘণ্টা, আগস্ট ১৭, ২০১০
‘লাইগার’ উৎপাদন করায় জরিমানা

তাইপে: ‘লাইগার’ উৎপাদন করায় তাইওয়ানের এক চিড়িয়াখানার মালিককে জরিমানা করেছে সে দেশের সরকার।

বন্য প্রাণী আইন ভঙ্গ করায় ‘ওয়ার্ল্ড স্নেক কিং এডুকেশন ফার্ম’ নামের ওই চিড়িয়াখানার মালিককে এখন জরিমানা দিতে হবে এক হাজার ছয় শ’ ডলার।



‘লাইগার’ হচ্ছে সিংহ ও বাঘের মিলিত হাইব্রিড। সিংহ ও বাঘিনীর মিলনে যেসব বাচ্চা জন্ম নেয় সেগুলোকে ‘লাইগার’ বলে।

এর আগে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে লাইগার উৎপাদন করা হলেও তাইওয়ানে এই প্রথম এ হাইব্রিড প্রজাতি জন্ম নিল। এটা প্রাকৃতিকভাবে হলেও বাঘ ও সিংহের প্রজাতির জন্য হুমকি। তাই পৃথিবীর সব দেশেই এমন হাইব্রিড প্রাণী উৎপাদনের বিরুদ্ধে আইন আছে।

চিড়িয়াখানার মালিক হুয়াঙ কু-নান অবশ্য বলেছেন, তিনি ইচ্ছা করে এই হাইব্রিড লাইগার উৎপাদন করেননি। বাচ্চা অবস্থা থেকেই ওই একটি সিংহ আর একটি বাঘিনী একই খাঁচায় থাকত। এ যাবৎ কোনো কিছুই ঘটেনি। কিন্তু বাঘিনী যখন হঠাৎ করে গর্ভধারণ করে তখন আর তার কিছু করার ছিল না।

শনিবার হুয়াঙের চিড়িয়াখানায় তিনটি লাইগার জন্ম নেওয়ার পর একটি মারা যায়।
 
জানা গেছে পৃথিবীতে বর্তমানে ১০টি লাইগার জীবিত আছে। ওগুলোর আকার সাধারণ সিংহ ও বাঘের চেয়ে বড়।

বাংলাদেশ সময়: ০৫০০ ঘণ্টা, আগস্ট ১৭, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa