ঢাকা, সোমবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২০ মে ২০২৪, ১১ জিলকদ ১৪৪৫

ইসলাম

শিশুদের মোজায় ‘আল্লাহ’ লেখা, ক্ষমা চেয়ে মোজা প্রত্যাহার

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৯, ২০১৮
শিশুদের মোজায় ‘আল্লাহ’ লেখা, ক্ষমা চেয়ে মোজা প্রত্যাহার এইচঅ্যান্ডএমের বাজারজাত করা মোজায় আরবিতে ‘আল্লাহ’ লেখা থাকার অভিযোগ পাওয়া গেছে

সুইডেনভিত্তিক তৈরি পোশাকের খুচরা বিক্রেতা ব্র্যান্ড হ্যানস অ্যান্ড মৌরিটজের (এইচঅ্যান্ডএম) বাজারজাত করা মোজায় আরবিতে ‘আল্লাহ’ লেখা থাকার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অবশ্য অভিযোগের পর পরই ক্ষমা চেয়ে বাজার থেকে মোজাগুলো প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছে কোম্পানিটি।  

প্রতিষ্ঠানটির মুখপাত্র ড্যাজেন্স নিহেটার (Dagens Nyheter) জানান, ক্রেতাদের কাছ থেকে এ বিষয়ে অভিযোগ পাওয়ার পর ওই ব্র্যান্ডের মোজাগুলো বাজার থেকে প্রত্যাহারের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

 

রাশিয়া টুডের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সম্প্রতি বাজারজাত করা বাচ্চাদের ব্যবহারের উপযোগী ওই মোজায় অন্যান্য চিত্রের সঙ্গে একটি অঙ্কন আছে। যেটিকে উল্টোভাবে ধরলে আরবি হরফে- ‘আল্লাহ’ শব্দ বলে দৃশ্যমান হয়।  

এইচঅ্যান্ডএম কর্তৃপক্ষের দাবি, ইচ্ছা করে আরবি বর্ণমালার ওই শব্দটি ব্যবহার করা হয়নি। বিষয়টি একেবারেই কাকতালীয়। এর মাধ্যমে কোনো বার্তাও দেওয়ার চেষ্টা করা হয়নি। কোনো সম্প্রদায় আমাদের আচরণে কষ্ট পাক- সেটা আমরা কামনা করি না। যেহেতু কথা উঠেছে, তাই আমরা মোজাগুলো প্রত্যাহার করছি, সেই সঙ্গে ক্ষমাপ্রার্থী।  

এর আগে ২০১৫ সালে বর্ণবাদী একটি বিজ্ঞাপনকে কেন্দ্র করে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়ে এইচঅ্যান্ডএম। সেবার বিজ্ঞাপন প্রত্যাহার ও ক্ষমা চেয়ে পার পায় তারা।  

উল্লেখ্য যে, বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের বড় ক্রেতা এইচঅ্যান্ডএম। তারা বাংলাদেশ থেকে বছরে প্রায় ২০০ কোটি ডলারেরও চেয়ে বেশি পরিমাণ অর্থের পোশাক কিনে থাকে।  

বিশ্বখ্যাত এই ব্র্যান্ডটির সারা বিশ্বে ৩ হাজার ৯২৪টি বিক্রয়কেন্দ্র রয়েছে।

ইসলাম বিভাগে লেখা পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৯, ২০১৮
এমএইউ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।