ঢাকা, শনিবার, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ১৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ইচ্ছেঘুড়ি

রহস্য দ্বীপ (পর্ব-১৭)

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩২৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৬, ২০১৬
রহস্য দ্বীপ (পর্ব-১৭)

অবশেষে রোববার চলে আসে। শিশুরা অনেক আগেই তাদের খালা-খালুকে ছেড়ে এসেছে। ওরা রান্নাঘরের বাগানে হামাগুঁড়ি দিয়ে এক বাক্স মটরশুটি, ছয়ুট লেটুস ‍পাতা, পাকা শিম, গাজর, কয়েকটি মূলা ও পাশের মুরগির খোঁয়াড়ে হাত গলিয়ে সদ্য পাড়া ছয়টা ডিম পাওয়া পায়!

[পূর্বপ্রকাশের পর]

অবশেষে রোববার চলে আসে। শিশুরা অনেক আগেই তাদের খালা-খালুকে ছেড়ে এসেছে।

ওরা রান্নাঘরের বাগানে হামাগুঁড়ি দিয়ে এক বাক্স মটরশুটি, ছয়ুট লেটুস ‍পাতা, পাকা শিম, গাজর, কয়েকটি মূলা ও পাশের মুরগির খোঁয়াড়ে হাত গলিয়ে সদ্য পাড়া ছয়টা ডিম পাওয়া পায়!

নোরা চুপিসারে ঘরে গিয়ে ভাঁড়ার ঘরে ঢুকে পড়ে। কাল সকালে খালা যে জিনিসটির কথা বলেছিল সে কি তা আনতে পারবে? সামান্য চা-পাতি? হ্যাঁ! তাকের একেবারে ওপর থেকে একটিন কোকা। ভাঁড়ারের তাক থেকে এক প্যাকেট কিশমিশ এবং একটিন চালও। বড় একটি রুটি, কেকের টিন থেকে কয়টা কেক! পুঁচকে মেয়েটা এর সবকিছু তার বাক্সে পুড়ে অন্যদের সঙ্গে যোগ দিতে ছোটে। খালা কোনো কিছু আঁচ করতে পারার আগেই সবকিছু নিরাপদে গাছের কোটরে এনে জমা করা হয়।
ভাঁড়ার ঘর থেকে কোনো কিছু আনতে পেগি সায় দেয়নি, কিন্তু মাইক বলে পরদিনও যাতে খালা-খালুর সেখান থেকে কিছু আনার দরকার না হয়, তার জন্য ছিঁটে ফোঁটা বাইরে রেখে আসা চাই।

যাই হোক, ওরা যদি আমাদের কাজের উপযুক্ত মজুরি দিতো, তাহলে এতোসব দরকারি জিনিসপত্র কেনার পরও আমাদের হাতে যথেষ্ট টাকা থাকতো। জিনিসগুলো কোটরে রাখার সময়, সে বলে।

সকালের নাস্তা করার জন্য, শেষবারের মতো তারা খামারে ফিরে যায়। পেগিই রান্না করে, এবং মনে মনে জপ করতে থাকে খালা যেন তার রান্না করার বড় লোহার চামচ খোয়া যাওয়ার বিষয়টি টের না পান। সে আরও আশা করতে থাকে তিনি যেন প্যাকেট থেকে আরেকটি মোমবাতি আনতে ভাঁড়ার ঘরে না যান, কারণ সে জানে বাকিগুলো মাইক এরই মধ্যে সরিয়ে ফেলেছে, সেই সঙ্গে খালুর পুরাতন একটা লণ্ঠনও!

শিশুরা নীরবে তাদের সকালের নাস্তা শেষ করে।

খালা তাদের দিকে তাকায়। আমার মনে হচ্ছে তোমরা ভাবছ আজও তোমরা পিকনিকে যাচ্ছ! তবে, তোমাদের যাওয়া হবে না! আজ তোমরা এখানেই থাকবে এবং নোরা আর পেগি বাগানের আগাছা পরিষ্কার করবে। এবং আমি নিশ্চিত হেনরি মাইককেও কিছু একটা করতে দেবে। তোমাদের কেউ একজন টিন থেকে কেক সরিয়েছে, আর তাই আজ তোমাদের সবাইকে বাড়িতেই থাকতে হবে! বাচ্চা তিনটির বুক কেঁপে ওঠে। আজ সারা দিন! মেয়ে দু’টি যখন ধোয়া মোছায় ব্যস্ত, সেই ফাঁকে মাইক জানালা দিয়ে বাইরে তাকায়।

চলবে....

আরও পড়ুন:
**রহস্য দ্বীপ (পর্ব-১৬)
**রহস্য দ্বীপ (পর্ব-১৫)
**
রহস্য দ্বীপ (পর্ব-১৪)
**রহস্য দ্বীপ (পর্ব-১৩)
**রহস্য দ্বীপ (পর্ব-১২)
**রহস্য দ্বীপ (পর্ব-১১)
**রহস্য দ্বীপ (পর্ব-১০)
***রহস্য দ্বীপ (পর্ব-৯)
**রহস্য দ্বীপ (পর্ব-৮)
**রহস্য দ্বীপ (পর্ব-৭)

**রহস্য দ্বীপ (পর্ব-৬)
**রহস্য দ্বীপ (পর্ব-৫)
**রহস্য দ্বীপ (পর্ব-৪)
**রহস্য দ্বীপ (পর্ব-৩)
**রহস্য দ্বীপ (পর্ব-২)
** রহস্য দ্বীপ (পর্ব-১)

বাংলাদেশ সময়: ০৫২৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০১৬
এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa