ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ মাঘ ১৪২৯, ২৭ জানুয়ারি ২০২৩, ০৪ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

সিনেমা হলে টিকিট কেটে বিশ্বকাপ খেলা দেখছেন ফুটবলপ্রেমীরা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৪, ২০২২
সিনেমা হলে টিকিট কেটে বিশ্বকাপ খেলা দেখছেন ফুটবলপ্রেমীরা

নীলফামারী: গভীর রাত। অন্ধকার চারিদিকে।

সিনেমা হলের ভেতর থেকে ভেসে আসছে হইচই, চিৎকার। শেষ শোয়ের সময় পেরিয়ে গেছে। তবুও চলছে সিনেমা! 

কাছে গিয়ে দেখা গেল টিকিট কাউন্টার খোলা আছে। সেখানে সারিবদ্ধ লোক দাঁড়িয়ে আছেন। চলছে টিকিট বিক্রি।  

কোন সিনেমা দেখতে গভীর রাতেও হাউজফুল! হলের ভেতরে গিয়ে দেখা গেল সিনেমা নয়; চলছে বিশ্বকাপ ফুটবল খেলা।  

নীলফামারীর সৈয়দপুরে পাঁচমাথা মোড়ে অবস্থিত শহরের একমাত্র প্রেক্ষাগৃহ তামান্না সিনেমা হলে চলচ্চিত্রের পরিবর্তে বিশ্বকাপ খেলা দেখানো হচ্ছে।

বড় পর্দায় বিশ্বকাপের খেলা দেখতে ভিড় জমাচ্ছেন ফুটবলপ্রেমীরা।

শনিবার (৩ ডিসেম্বর) রাত দেড়টায় সিনেমা হলের রূপালি পর্দায় দেখানো হয় নকআউটপর্বের আর্জেন্টিনা-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচ।  প্রচুর দর্শকের সমাগম হয় হলে।

দর্শকদের মধ্যে শহর ও প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে আসা দিনমজুর শ্রেণির মানুষও রয়েছেন।  

৩৬ মিটার ডিজিটাল পর্দা ওই পর্দায় আর্জেন্টিনা ও অস্ট্রেলিয়ার শ্বাসরুদ্ধকার ম্যাচ দেখছেন তারা মনযোগী হয়ে। মাঝে মাঝেই উচ্চস্বরে হইচই, উত্তেজনায় লাফালাফি।  

খেলা দেখতেই টিকিট কেটে হলে ঢুকেছেন রিকশাচালক জমির উদ্দিন (২৪)। হলের প্রথমশ্রেণির টিকেট কেটেছেন তিনি।  

তিনি বললেন, বাড়িতে টেলিভিশন আছে। কিন্তু ছোট পর্দায় খেলা দেখে মজা নেই। তাই সিনেমা হলে চলে এলাম। গত এক সপ্তাহ ধরে প্রতি রাতে বিশ্বকাপ দেখতে টিকিট কেটে হলে আসছি।

হোটেল শ্রমিক শফিকুল ইসলাম (৩০) দারুণ উত্তেজনা নিয়ে খেলা দেখছিলেন বেলকনির সোফায় বসে। কথা বলতে চাইলে একটু বিরক্ত হলেন তিনি। বললেন, দেখছেন তো খেলা দেখছি। প্রিয় দল আর্জেন্টিনার খেলা হচ্ছে। মেসি আমার প্রিয় খেলোয়াড়। তার খেলা চলছে। পরে কথা বলি।  

দুদিন আগেও খেলা দেখেছেন কামারপুকুর গ্রাম থেকে আসা আরমান আলী (৩৫) ওই হলে। তিনি বলেন, আমার পছন্দের খেলোয়াড় নেইমার। নেইমার আহত হয়ে খেলতে পারছেন না। খুব কষ্ট লাগছে। বিশ্বকাপের সর্বশেষ খেলায় নেইমারের দল ব্রাজিল ক্যামেরুনের কাছে হেরেছে।  

এই হারকে মানতে চান না তিনি। বললেন, এটা তো ছিল প্র্যাকটিস ম্যাচ। সব নতুন ছেলেরা খেলেছে। সিনিয়ররা কেউ খেলেনি।  

ব্রাজিল প্রিয় দল হলেও আর্জেন্টিনার সব খেলায় দেখেন তিনি। তাই বড় পর্দায় খেলা দেখতে এসেছেন জানালেন তিনি।

হল মালিক মাহবুব আলম জানান, সিনেমার ব্যবসা আগের মত নেই। নতুন নতুন ছবি এলেও চালাতে পারছি না। সৈয়দপুরে একে একে ৩টি হল বন্ধ হয়ে গেছে। কোনরকমে চালু রেখেছি আমাদের হলটি। রাত ১২ টায় সব শো শেষ হয়ে যায়। এরপর দর্শকের অনুরোধে বিশ্বকাপ চালাচ্ছি। গত এক সপ্তাহ ধরে বিশ্বকাপের খেলা বড় পর্দায় দেখতে পাচ্ছেন মানুষ। খেলা দেখতে ভিড় বাড়ছে প্রতিদিন। টিকেটের দাম কম রাখা হয়েছে। মাত্র ১০ থেকে ১৫ টাকা। এতে করে দর্শকরাও খুশি, আমরাও খুশি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৪, ২০২২
এসএএইচ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa