ঢাকা, মঙ্গলবার, ১২ মাঘ ১৪২৭, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

থ্যাংকসগিভিং ডে: জেসিআই ঢাকা ইয়ংয়ের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৪৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২০
থ্যাংকসগিভিং ডে: জেসিআই ঢাকা ইয়ংয়ের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

ঢাকা: নভেম্বরের শেষ সপ্তাহে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশে ‘থ্যাংকসগিভিং ডে’ পালিত হয়। সেই ধারা অনুসরণ করে সারা বছর বিভিন্ন কাজের জন্য একে অপরকে কৃতজ্ঞতা জানাতে দিবসটি পালন করলেন জেসিআই ঢাকা ইয়ংয়ের সদস্যরা।

ডিএমপির বিভিন্ন জোনের পুলিশ অফিসারদের কৃতজ্ঞতা ও শুভেচ্ছা জানানোর মাধ্যমে দিবসটি উদযাপন করেছে জেসিআই ঢাকা ইয়ং। করোনাকালে ও যে কোনো দুর্যোগে জনগণের সেবা ও সুরক্ষায় পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা অগাধ পরিশ্রম করে চলেছেন। তাদের জন্যই জেসিআই ঢাকা ইয়ংয়ের এই উদ্যোগ।

উদ্যোগের মূল পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নে ছিলেন নবীন সদস্য রাবেয়া নাসির অভি ও সেক্রেটারি জেনারেল এস এম মুক্তাদিরুল হক। জেনারেল লিগ্যাল কাউন্সিল সামিয়া রহমান ও লোকাল প্রেসিডেন্ট ইমতিয়াজ চৌধুরীসহ অন্যান্য সদস্যরা এই উদ্যোগে অংশ নেন।

জেসিআই ঢাকা ইয়ংয়ের সদস্যরা ডিএমপির বিভিন্ন জোনের পুলিশ অফিসারদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিলেন- এআইজি সোহেল রানা (মিডিয়া) পুলিশ হেডকোয়ার্টার; অ্যাডিশনাল এসপি মাহফুজ, পুলিশ হেডকোয়ার্টার; অ্যাডিশনাল ডেপুটি কমিশনার অব পুলিশ মাহমুদা আফরোজ লাকী, দারুসসালাম জোন মিরপুর; অফিসার ইনচার্জ মো. আবু বকর সিদ্দিক, পল্টন মডেল থানা; ইন্সপেক্টর রাশেদ মোবারক, এসবি গুলশান সিটি-২, অফিসার ইনচার্জ ফারুকুল ইসলাম, খিলগাঁও থানা; অফিসার ইনচার্জ পারভেজ ইসলাম, বাড্ডা থানা; অফিসার ইনচার্জ সালাহউদ্দিন অফিসার, তেজগাঁও থানা; অফিসার ইনচার্জ জানে আলম মুন্সি, শেরে বাংলা নগর থানা; অফিসার ইনচার্জ কাইয়ুম, নিউমার্কেট থানা; অফিসার ইনচার্জ শাহীন ফকির, বংশাল থানা। পুলিশের এই কর্মকর্তাদের সঙ্গে জেসিআই ঢাকা ইয়ংয়ের সদস্যরা সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন ও মতামত বিনিময় করেন।

জেসিআই ঢাকা ইয়ংয়ের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে মিরপুর দারুসসালাম জোনের অ্যাডিশনাল ডেপুটি কমিশনার অব পুলিশ মাহমুদা আফরোজ লাকী বলেন, জেসিআই ইন্টারন্যাশনালের পক্ষ থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন কাজকর্মে ঢাকা ইয়ংকে নিয়োজিত দেখতে পেয়ে খুব ভালো লাগে এবং এটি অত্যন্ত প্রশংসনীয়। আমি নিজেই দেখেছি তারা বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ধরনের কাজ করে আসছেন, যা নতুন তরুণদের জন্য অনুপ্রেরণা। কোভিড-১৯ এর সময় দুঃস্থ মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে যে সমস্ত কাজগুলো করেছে তা দেখে আমি মুগ্ধ। এ ধরনের কাজ যারা করেন, আমি সবসময় তাদের পাশে আছি। তাই আমার পক্ষ থেকে জেসিআই ঢাকা ইয়ংকে জানাই অনেক শুভেচ্ছা ও শুভকামনা।

এ প্রসঙ্গে জেসিআই ঢাকা ইয়ংয়ের সেক্রেটারি জেনারেল এস এম মুক্তাদিরুল হক বলেন, করোনাকালীন পরিস্থিতি বিবেচনা করে এবং সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমরা সীমিত আকারে থ্যাংকসগিভিং ডে উদযাপন করেছি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আগামীতে দেশব্যাপী আরো বড় পরিসরে এই কার্যক্রম অব্যাহত রাখার আশা ব্যক্ত করছি।

জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল (জেসিআই) ১৮ থেকে ৪০ বছর বয়সী উদ্যমী তরুণদের একটি সংগঠন। জেসিআই সদর দপ্তর যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরির সেন্ট লুইসে অবস্থিত। ১২০টিরও বেশি দেশে এর কার্যক্রম রয়েছে এবং সারা বিশ্বে এর সদস্য সংখ্যা ২ লাখের উপর। বাংলাদেশে বর্তমানে জেসিআই-এর ১৪টি লোকাল চ্যাপ্টার কাজ করছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪২ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২০
এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa