ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮, ০৫ আগস্ট ২০২১, ২৫ জিলহজ ১৪৪২

জাতীয়

এ বাজেট বাস্তবায়ন করা সম্ভব না : হারুন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪০৯ ঘণ্টা, জুন ১৭, ২০২১
এ বাজেট বাস্তবায়ন করা সম্ভব না : হারুন

ঢাকা: চলতি অর্থবছরের বাজেট দেশের এ যাবতকালের সর্বোচ্চ ঘাটতির বাজেট বলে উল্লেখ করে বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশিদ বলেছেন, করোনার এই সময়ে এই বাজেট বাস্তবায়ন করা সম্ভব না।

বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

হারুনুর রশিদ বলেন, বাজেটে যে ঘাটতি দেখানো হয়েছে সেটা দেশে এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ ঘাটতির বাজেট। করোনার এই সময় এই বাজেট বাস্তবায়ন করা সম্ভব না। আজ শেয়ার বাজার ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি আছে। ব্যাংকগুলো সাংঘাতিকভাবে লুটপাটের দ্বারা আক্রান্ত। ব্যাংক থেকে টাকা নিচ্ছে ফেরত দিচ্ছে না। ব্যাংকগুলো বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি। বিএনপির সময়ের অর্থমন্ত্রী ভ্যাট ব্যবস্থা চালু করেছিলেন, প্রতিবাদে আওয়ামী লীগ ৭২ ঘণ্টা হরতাল করেছিল। কিন্তু আজ প্রমাণিত হয়েছে ভ্যাট একটি কার্যকর ব্যবস্থা।

তিনি বলেন, সংবিধান এখন রাষ্ট্র পরিচালনার দলিল না। সংবিধানের চার মূলনীতির একটি ধর্মনিরপেক্ষতা। কোরআনে ধর্মনিরপেক্ষতার স্থান নেই। আজ ভিন্ন মতের কোনো স্বাধীনতা নেই, মানুষ স্বাধীনভাবে মতপ্রকাশ করতে পারছে না। সাবেক তিন বারের প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না। দণ্ডিতদের ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে। খালেদা জিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে বিদেশে চিকিৎসার আবেদন করা হয়েছে। আমি তার বিদেশে চিকিৎসার অনুমতির দেওয়ার দাবি জানাই।

হারুন বলেন, নির্বাচন কমিশনের দরকার কী? বিলুপ্ত করে দেন। রাতে ভোট হয়ে যায়, নির্বাচন কমিশন বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া দরকার। ৫০ বছর পর পাসপোর্ট থেকে ইসরায়েলের নাম বাদ দেওয়া হয়েছে, এটা উদ্দেশ্য প্রণোদিত। এটা আবার ফিরিয়ে আনতে হবে। মন্ত্রীরা সবসময় বিএনপির কথা বলেন। বিএনপি নির্বাচন বর্জন করলো, এসব নিয়ে মন্ত্রীরাই বলেন। মানুষ আমাদের বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাদের কি দায়িত্ব দিয়েছেন বিএনপির কথা বলতে?

এ সময় হারুনুর রশিদ স্পিকারের কাছে আরও একটু সময় চেয়ে বলেন, আমাকে একটু সময় বাড়িয়ে দেবেন, আমিই তো বিরোধী দলের নেতা।

তার এই বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে আসন থেকে উঠে দাঁড়ান বিরোধী দলের চিফ হুইপ ও জাতীয় পার্টির নেতা মশিউর রহমান রাঙ্গা। তিনি বারবার এ কথার প্রতিবাদ জানাতে থাকেন। তখন স্পিকার তাকে শান্ত করে বলেন, এই অংশটুকু এক্সপাঞ্জ করে দেবো। এরপর হারুন বলেন, আমরা গত ৫০ বছরে গণতন্ত্রের ভিত্তি তৈরি করতে পারিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০৭ ঘণ্টা, জুন ১৭, ২০২১
এসকে/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa