ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ মাঘ ১৪২৮, ২০ জানুয়ারি ২০২২, ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

জাতীয়

স্বামীর ব্লাউজ সেলাই পছন্দ হয়নি, দর্জির স্ত্রীর আত্মহত্যা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৬, ২০২১
স্বামীর ব্লাউজ সেলাই পছন্দ হয়নি, দর্জির স্ত্রীর আত্মহত্যা! বিজয়ালক্ষী

নিজের পছন্দমতো ব্লাউজ সেলাই করে দিতে না পারায় ভারতের হায়দরাবাদে আত্মহত্যা করেছেন বিজয়ালক্ষ্মী (৩৫) নামে এক দর্জির স্ত্রী।  

এ খবর দিয়েছে অনলাইন এনডিটিভি।

ঘটনাটি ঘটেছে হায়দরাবাদের আম্বারপেতে।  

রিপোর্টে বলা হয়েছে, বিজয়ালক্ষ্মী তার স্বামীকে নিজের পছন্দমত ব্লাউজ সেলাই করে দিতে বলেছিলেন। তার স্বামী ব্লাউজ সেলাই করে দিয়েছিলেনও। কিন্তু পছন্দ হয়নি বিজয়ালক্ষ্মীর। এ কারণে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ হয়। এরপর নিজের শোয়ার ঘরে ঢুকে আত্মহত্যা করেন বিজয়ালক্ষ্মী। পরে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে।

রিপোর্টে আরও বলা হয়- হায়দরাবাদের গোলনাকা তিরুমালা নগরে স্কুলগামী দুই সন্তান, স্বামী শ্রীনিবাসকে নিয়ে ছিল বিজয়ালক্ষ্মীর সংসার। তার স্বামী ফেরি করে শাড়ি, ব্লাউজ ও অন্যান্য জিনিসপত্র বিক্রি করতেন। আর ঘরে বসে সেলাই করতেন ব্লাউজ ও বিভিন্ন পোশাক। কয়েকদিন আগে তিনি নিজের স্ত্রীর জন্য একটি ব্লাউজ সেলাই করেন। কিন্তু তা পছন্দ হয়নি বিজয়ালক্ষ্মীর। এ নিয়ে তাদের মধ্যে তীব্র বাকবিতণ্ডা হয়।

বিজয়ালক্ষ্মীর দাবি ছিল আবার নতুন করে সেলাই করে দিতে হবে ব্লাউজ। কিন্তু তার সে দাবি প্রত্যাখ্যান করেন শ্রীনিবাস। পক্ষান্তরে শ্রীনিবাস জানিয়ে দেন, পছন্দ না হলে নিজের মতো করে ব্লাউজ সেলাই করে নিতে। বিষয়টি বিজয়ালক্ষ্মীর কাছে প্রচণ্ড অপমানের মনে হয়েছে। ঘটনার দিন তাদের সন্তান স্কুল থেকে বাড়ি ফিরে দেখতে পায় ঘরের দরজা বন্ধ, একটানা দরজায় নক করতে থাকে। কিন্তু ভেতর থেকে কোনো সাড়া মেলে না। একপর্যায়ে খবর পৌঁছে যায় শ্রীনিবাসের কাছে। তিনি দৌড়ে বাড়ি ফেরেন। দেখতে পান ঘরের দরজা ভেতর থেকে আটকানো। নক করেন দরজায়। কিন্তু কোনো সাড়া মেলে না। অনেকক্ষণ চেষ্টার পর দরজা ভেঙে ফেলা হয়। তিনি ও অন্যরা দেখতে পান, ঘরের মধ্যে পড়ে আছে বিজয়ালক্ষীর মরদেহ। বিষয়টি জানানো হয় পুলিশকে।  

ইন্সপেক্টর পি. সুধাকর বলেছেন, শ্রীনিবাস তাদের জানিয়েছেন যে এর আগেও যখন রাগারাগি হতো, হতাশায় ভুগতেন বিজয়ালক্ষ্মী, তখন তার স্ত্রী নিজেকে ঘরের ভেতরে বন্দি করে রাখতেন। তাই তিনি এবারও বড় কিছু ঘটে যাবে ভাবতে পারেননি। এজন্য তাকে বাড়িতে একা রেখে বাইরে বেরিয়ে যান। যেহেতু বিজয়ালক্ষ্মী আত্মহত্যার কোনো নোট লিখে যাননি, সেজন্য এই মৃত্যুকে সন্দেহজনক মৃত্যু হিসেবে একটি মামলা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৬, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa