ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৯, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাতীয়

প্রবাসীকে হত্যা: ১৫ জনের নামে মামলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৫২ ঘণ্টা, আগস্ট ১৮, ২০২২
প্রবাসীকে হত্যা: ১৫ জনের নামে মামলা

যশোর: যশোরে প্রবাসী জামাল হোসেনকে হত্যার অভিযোগে ৪ প্রবাসীসহ ১৫ জনের নামে মামলা হয়েছে।

বুধবার (১৭ আগস্ট) নিহত জামালের বাবা মুছা করিম এ মামলা দায়ের করেন।

 

যশোরের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আরমান হোসেন অভিযোগটি গ্রহণ করে শার্শা থানা। এ ঘটনায় কোনো মামলা আছে কিনা থাকলে প্রতিবেদন আকারে আদালতে জমা দেওয়ার আদেশ দিয়েছেন শার্শা থানার ওসিকে।

আসামিরা হলেন, শার্শার ধালদা গ্রামের মানিক বিশ্বাসের ছেলে মোখলেজ, মৃত খোদা বক্সের ছেলে রহিম, মৃত মাহতাবের ছেলে ইউনুচ আলী, মুনছুরের ছেলে ইমরান, আরশাদ ত্রিপুরার ছেলে ভাষান, আবুল হোসেন, রফিক ত্রিপুরার ছেলে জয়নাল, খায়েরের ছেলে প্রবাসী রিপন, ওহাবের মেয়ে পারুল, জালালের ছেলে মিলন, ইদ্রিসের স্ত্রী আরজিনা, আমিনুরের ছেলে প্রবাসী সোহাগ, আব্দুল গণির ছেলে প্রবাসী সাইফুল, মানিক বিশ্বাসের ছেলে প্রবাসী মোখলেজ ও ঝিকরগাছার কুন্দিপুরের মতিয়ারের ছেলে মিন্টু মিয়া।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, জামাল হোসেন দীর্ঘদিন ধরে মালয়েশিয়া থেকে জীবিকা নির্বাহ করতেন। আসামি সোহাগ, মোখলেজ, সাইফুল ও জালাল মালয়েশিয়ার একই মেসে থাকতেন। বিদেশে থাকা অবস্থায় তিনি তার বাবা ও মায়ের জন্য নগদ অর্থ, সোনার গহনা ও মূল্যবান জিনিপত্র পাঠাতেন আসামি ইমরামসহ অন্যদের মাধ্যমে।

আসামিরা জামালের পাঠানো টাকা জিনিসপত্র তার বাবা ও মাকে না দিয়ে আত্মসাৎ করতেন। জামাল তার পাঠানো টাকা ও জিনিসপত্র আত্মসাতের বিষয়টি জেনে প্রতিবাদ করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আসামি সোহাগ, সাইফুল ও মোখলেজ তাকে মারধর করেছিলেন। এরমধ্যে আসামি রিপন সৌদি আরব যাওয়ার কথা বলে মালয়েশিয়া যায় এবং জামালের মেসে ওঠে। এক বছর আগে আসামিরা জামালকে হত্যা করে মরদেহ দেশে পাঠিয়ে দেয়। মরদেহ ময়নাতদন্ত রিপোর্ট চাইলে আসামিরা নিহত জামালের বাবা মুছা করিমকে বাড়িতে থেকে বের করে দেয়। এরপর তাড়াহুড়া করে আসামিরা জামালের মরদেহ দাফন সম্পন্ন করেন।  

জামালের মরদেহের সঙ্গে দেওয়া ময়নাতদন্ত রিপোর্টসহ যাবতীয় কাগজপত্র আসামি রহিম ও ইউসুফ গ্রহণ করে গোপন করে ফেলেন।  

এ ব্যাপারে ১১ আগস্ট সালিশে আয়োজন করলে আসামিরা বাড়িতে হামলা, মারধর ও ঘরবাড়ি ভাঙচুর করে মুছা করিমকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়। আসামিরা বিভিন্ন সময় জামালে উপার্জিত ৮/১০ লাখ টাকা নিয়ে আত্মসাৎ করেছেন বলে স্বীকার করে ফেরত দেবেন না বলে জানিয়ে দেয়। বিষয়টি মীমংসার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে তিনি আদালতে এ হত্যা মামলা করেছেন।  

বাংলাদেশ সময়: ০৯৪৬ ঘণ্টা, আগস্ট ১৮, ২০২২
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa