ঢাকা, সোমবার, ১৫ মাঘ ১৪২৯, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ০৭ রজব ১৪৪৪

রাজনীতি

২০২৩ নির্বাচনের ভোট পড়বে দুই রাত আগে: মান্না

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৫১ ঘণ্টা, জুন ২৫, ২০২১
২০২৩ নির্বাচনের ভোট পড়বে দুই রাত আগে: মান্না

ঢাকা: আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে কোনো ভোট হবে না। এবারের ভোট আগের রাতে হয়েছে।

এই সরকার ক্ষমতায় থাকলে ২০২৩ সালের নির্বাচনের ভোট হবে দুই রাত আগে বলে মন্তব্য করেছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।  

শুক্রবার (২৫ জুন) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে সোনার বাংলা পার্টি আয়োজিত ৮০ দশকের ছাত্র নেতা, পার্টির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মীরাজুল ইসলাম আব্বাসীর ১২তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক স্মরণ সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

মান্না বলেন, ‘আওয়ামী লীগ আগে থেকেই সব কিছু ঠিক করে রাখবে। আমরা যারা নির্বাচনে দাঁড়াতে চাই, তাদের বসিয়ে দেওয়া হবে। খুবই স্পষ্ট যারা ক্ষমতায় আছে তারা অনেক জায়গায় ঘোষণা করেছে, আমরা গায়ের জোরে ক্ষমতায় এসেছি, তোমরা (জনগণ) আমাদের ভোট দাওনি। আমরা গায়ের জোরে আছি, তোমাদের যদি গায়ের জোর থাকে তাহলে আমাদের সরাও। না হলে আমরা থাকবো। ’

দেশের আন্দোলনের কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, ‘যারা সভা করতে গিয়ে আওয়ামী লীগের গুণকীর্তন করেন, সংগ্রাম ঐতিহ্যের কথা বলেন, আমি তাদের মনে করিয়ে দিতে চাই, আওয়ামী লীগ এত সম্মান, উপাধি কিংবা প্রশংসা পাওয়ার যোগ্যতা রাখে না। আওয়ামী লীগ যেটুকু সম্মান পাওয়ার যোগ্য ছিল, সেটা হারিয়ে ফেলেছে। আওয়ামী লীগ এই দেশে আন্দোলন বুঝে, বিএনপি ও অন্য কেউ আন্দোলন বোঝেনা, এই কথাটা ভুল। দেশের যত বড় বড় আন্দোলন হয়েছে ইতিহাস খুঁজে দেখলে দেখা যাবে এই আন্দোলনগুলো আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে হয়নি। ভাষা আন্দোলন, ষাটের দশকের আন্দোলন, ঊনসত্তরের আন্দোলন ও গণঅভ্যুত্থান এইসব আন্দোলন ছাত্ররা করেছে। ’

মোটর চালিত রিকশার কথা উল্লেখ করেন তিনি বলেন, হঠাৎ করে যন্ত্র চালিত রিকশা বন্ধ করে দেওয়া হল। কিন্তু কেন? যারা রিকশা ব্যাটারি আমদানি করলো তাদের কোনো ক্ষতি হলো না। যারা নিজের উদ্যোগে কিনে নিজের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করলো, সেই রিকশাচালকদের কি পরিস্থিতি? কোনো বিবেচনা নেই, হঠাৎ করেই বলে দিল মোটর চালিত রিকশা অবৈধ। তুমি (সরকার) নিজেই অবৈধ, তুমি কাকে অবৈধ বলো? 

শাটডাউনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার এখন বলছে শাটডাউন করবে। দশ দিনের জন্য শাটডাউন করলে গরীব মানুষগুলোকে খাবার পৌঁছে দিতে কত টাকা লাগবে আপনাদের? ওরা সেই টাকাও গরিব মানুষকে দেবে না। গরিব মানুষগুলো যদি মারাও যায়, তাদের এত কিছু যায় আসে না। কারণ এদের তো ভোটের প্রয়োজন হয় না। আমরা বলেছি দেশের ১০ কোটি দরিদ্র মানুষের ৩ বা ৬ মাস চলতে পারে, এরকম অর্থের ব্যবস্থা করা হোক। এতে কত টাকা লাগতে পারে? ২৫ হাজার কোটি টাকা বা ৫০ হাজার কোটি টাকা। কতগুলো মানুষ এই টাকা পাওয়ার যোগ্য, এর ব্যবস্থা করেন। ৬ লাখ কোটি টাকার বাজেট করেন, ৫০ হাজার কোটি টাকা এই দরিদ্র মানুষদের দিতে পারবেন না?’

স্মরণ সভায় উপস্থিত ছিলেন- বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি সাধারণ সম্পাদক কমরেড সাইফুল হক, সোনার বাংলা পার্টির সভাপতি শেখ আব্দুন নুর, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ হারুন-অর-রশীদ, বাংলাদেশ জাসদ সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বজলুর রশিদ ফিরোজ, এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, জাগপা প্রেসিডিয়াম সদস্য আসাদুর রহমান খান প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪২ ঘণ্টা, জুন ২৫, ২০২১
এমএমআই/এমআরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa