ঢাকা, শনিবার, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

রাজনীতি

এক মুহূর্ত ক্ষমতায় থাকার অযোগ্য আ. লীগ সরকার: এলডিপি

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩৩ ঘণ্টা, আগস্ট ৬, ২০২২
এক মুহূর্ত ক্ষমতায় থাকার অযোগ্য আ. লীগ সরকার: এলডিপি

ঢাকা : বিনা কারণে ডিজেল, কেরোসিন, অকটেন, পেট্রোলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছে লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টির (এলডিপি) একাংশের সভাপতি আবদুল করিম আব্বাসী ও মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার এক মুহূর্ত ক্ষমতায় থাকার অযোগ্য বলেও মন্তব্য করেছে দলটি।

শনিবার (৬ আগস্ট) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ মন্তব্য করার পাশাপাশি সরকারকে অবিলম্বে জন বিরোধী সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার আহ্বান জানান তারা।

যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি করে আওয়ামী লীগ সরকার প্রমাণ করেছে তারা আর এক মুহূর্তও ক্ষমতায় থাকার অযোগ্য।

বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার ভোটে নির্বাচিত নয় বলেই বারবার সাধারণ মানুষের উপর নিপীড়ন চালিয়ে যাচ্ছে। নিপীড়নের সর্বশেষ প্রক্রিয়া হচ্ছে শুক্রবার রাতে হঠাৎ করেই জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি। বিশ্ববাজারে যখন জ্বালানির মূল্য কমছে, তখন সরকার কাকে খুশি করতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে? নিঃসন্দেহে এই সিদ্ধান্ত দেশের মানুষের জীবন যাপনকে কঠিন থেকে কঠিনতরো করে তুলবে।

বিবৃতিতে এলডিপি সভাপতি আবদুল করিম আব্বাসী ও মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম উল্লেখ করেন, ডিজেল-কেরোসিন-পেট্রোল- অকটেনের দাম বাড়ানোর প্রভাবে পরিবহন ভাড়া এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বাড়বে। মূল্যস্ফীতির চাপ বাড়বে অত্যধিক। ফলে মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্তের জীবন ধারণ ব্যয় বেড়ে যাবে। সব মিলিয়ে অর্থনীতির ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়বে।

সরকারকে এখনি জ্বালানি তেলের মূল্য কমানোর দাবি জানায় ২০ দলীয় জোটের শরিক এলডিপি। আব্বাসী ও সেলিম বলেন, কাকে খুশি করতে সরকার এই জন বিরোধী সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তা দেশের মানুষ জানে। আর জানে বলেই জনগণ সরকারের এসব দৈন্যতা মেনে নেবে না। দেশের জনপ্রতিনিধিত্বশীল রাজনৈতিক দলগুলোও এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করছে। এমনকি সরকারের সঙ্গে যারা যুক্ত, তারাও এই সিদ্ধান্তকে মেনে নিতে পারছে না।

গত কয়েক বছরে বিপিসি ৫০ হাজার কোটি টাকা মুনাফা করেছে। এর একটি বড় অংশ সরকারি কোষাগারে জমা হয়েছে। এই টাকা থেকে এখন প্রয়োজনে জ্বালানি খাতে ভর্তুকি দেওয়ার সুযোগ রয়েছে। সরকারকে অবিলম্বে ভর্তুকি শুরু করতে হবে।

প্রধান বিরোধী রাজনৈতিক দল বিএনপির প্রতি আহ্বান জানিয়ে এলডিপি সভাপতি আবদুল করিম আব্বাসী ও মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম বলেন, জনগণের সঙ্গে সরকারি মশকরার এ সময়ে বিএনপিকে জনগণের পাশে দাঁড়িয়ে রাজনৈতিক দলগুলোকে ঐক্যবদ্ধ করে সরকার পতনের আন্দোলন শুরু করতে হবে।

এলডিপির নেতাকর্মীরা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্ব ও নির্দেশনায় বাংলাদেশ পুনর্গঠনের আন্দোলনে সর্বাত্মক লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

বাংলাদেশ সময় : ১৬৩২ ঘণ্টা, ৬ আগস্ট, ২০২২
এমএইচ/এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa