ঢাকা, শুক্রবার, ৬ মাঘ ১৪২৮, ২১ জানুয়ারি ২০২২, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

রাজনীতি

পরিবেশ নেই অভিযোগে সংসদে যাচ্ছে না বিএনপি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১০
পরিবেশ নেই অভিযোগে সংসদে যাচ্ছে না বিএনপি

ঢাকা: সংসদে জাতীয় কোনো সমস্যার সমাধান নিয়ে কথা বলা হয় না কেবল জিয়া ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে কুৎসা রটাতে সরকারি দলের এমপিরা ব্যস্ত থাকেন। শুক্রবার এ অভিযোগ করে বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য এমকে আনোয়ার বলেন, সংসদে অংশগ্রহণের পরিবেশ নেই বলেই তারা সংসদে ফিরে যেতে পারছেন না।



বৃহস্পতিবার রাতে স্থায়ী কমিটির বৈঠকের সিদ্ধান্তের বিষয়ে জানাতে নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি সংসদে ফিরছে কিনা জানতে চাইলে দলের স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, ‘সংসদে বিএনপি’র কোন মর্যাদা নেই, সাংসদদের প্রতি সম্মান দেখানো হয় না, যদি কখনো পরিবেশ সৃষ্টি হয় তখন আমরা সংসদে যাবো। ’

এম কে আনোয়ার জানান, ‘স্থায়ী কমিটির বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১ অক্টোবর থেকে মাসব্যাপী কর্মসূচি পালন করবে বিএনপি। কমসূচির মধ্যে রয়েছে ১০ অক্টোবর ২০১০ শহীদ জেহাদ দিবস উপলে সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়ায় ছাত্র গণজমায়েত। এতে চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া উপস্থিত থাকবেন।

এছাড়া থানায় থানায় মাসব্যাপী কর্মসূচি পালনের পর খালেদা জিয়া দেশের বৃহত্তর জেলা সদরে পর্যায়ক্রমে সমাবেশ করবেন।

এম কে আনোয়ার বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার আগে জনগণের কাছে দেওয়া প্রতিশ্রুতির মধ্যে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার ছাড়া আর একটি কাজও করতে পারে নি। দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি, বিএনপি নেতা কর্মীদের ওপর হামলা মামলা, চৌধুরী আলমের নিখোঁজ হওয়াসহ বিভিন্ন বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়।  

তিনি জানান, স্থায়ী কমিটির বৈঠকে বিরোধী দলের বিরুদ্ধে সরকারের নির্যাতনমূলক মনোভাব, সংবিধান সংশোধন প্রসঙ্গ, স্বাস্থ্য উপদেষ্টার সাম্প্রতিক বক্তব্য ইত্যাদি বিষয়ও স্থান পায়।  

অপর এক প্রশ্নের জবাবে এমকে আনোয়ার বলেন, ‘সংসদে যোগ না দিয়ে অতীতে বিরোধী দল বেতন-ভাতা নিয়েছে। এখন আমরাও নিচ্ছি। ’

সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে যোগদান প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সংসদে কথা বলার সুযোগ না থাকলেও সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে কথা বলার সুযোগ পাওয়া যায়। ’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বরচন্দ্র রায়, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুবু হোসেন, ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, বিএনপির অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সালাম প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময় ১২১৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa