ঢাকা, শনিবার, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৩ আগস্ট ২০২২, ১৪ মহররম ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

তিনি যেখানেই যান, পেটান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩৪৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২১
তিনি যেখানেই যান, পেটান বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী

চট্টগ্রাম: রেলওয়ের স্টেশন মাস্টার (এসএম গ্রেড-৪) বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী। গত এক বছরে তিনি তিনটি মারামারির ঘটনা ঘটিয়েছেন।

এছাড়া আরও কয়েকটি ঘটনার অভিযোগ রয়েছে । এরমধ্যে বোয়ালখালীর ধলঘাট স্টেশনের স্টেশন মাস্টার অনুপম বড়ুয়া, গোমদন্ডী স্টেশনে কাজ করতে আসা সংকেত বিভাগের খালাসি জয়নাল আবেদীন এবং সর্বশেষ মঙ্গলবার (০৯ ফেব্রুয়ারি) গোমদন্ডী স্টেশনের পয়েন্টম্যান সোনা মিয়াকে পিটিয়েছেন।

রেলওয়ের সূত্র জানায়, বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী যেখানেই দায়িত্ব পালন করেছেন, সেখানেই কখনো তার সিনিয়রকে আর কখনো জুনিয়রকে পিটিয়েছেন। এ জন্য কয়েকবার বদলিও হয়েছেন। তার বিরুদ্ধে একাধিক তদন্ত কমিটিও হয়েছে। তদন্ত কমিটির রিপোর্টে তিনি একজন মানসিক রোগী বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

তাই তাকে যখন কোথাও বদলি করা হয়, মার খাওয়ার ভয়ে কর্মরত কর্মচারীরা ভীত সন্ত্রস্ত থাকেন। এ জন্য তার অধীনে কেউ কাজ করতেও চান না। তার হাত থেকে সিনিয়ররাও রেহাই পাননি।

গত বছরের ২১ ডিসেম্বরে রেলওয়ের সংকেত বিভাগের খালাসি জয়নাল আবেদীন কাজ করতে যান বোয়ালখালীর গোমদন্ডী স্টেশনে। কোনো কারণ ছাড়াই তাকে পিটিয়ে আহত করেছেন। এর আগে ধলঘাট স্টেশনের স্টেশন মাস্টার অনুপম বড়ুয়াকে মারধর করেন তিনি। তখন বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী ওই স্টেশনের সহকারী স্টেশন মাস্টার ছিলেন। এই ঘটনায় রেলওয়ের কর্মকর্তারাও হয়েছেন অবাক। পরে তাকে গোমদন্ডী স্টেশনে বদলি করা হয়।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গোমদন্ডী স্টেশনের পয়েন্টম্যান সোনা মিয়াকে মারধর করেন। এই ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা স্নেহাশীষ দাশ গুপ্ত বাংলানিউজকে বলেন, ওই স্টেশন মাস্টারের মানসিক সমস্যা আছে। সোমবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) পয়েন্টম্যানকে মারধর করেছে। এই ঘটনায় তদন্ত কমিটি হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী মোবাইলফোনে বারবার যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৪৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৯, ২০২১
জেইউ/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa