ঢাকা, রবিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

আলো ছড়াচ্ছে সিআইইউর ক্লাবগুলো

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১১৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২
আলো ছড়াচ্ছে সিআইইউর ক্লাবগুলো ...

চট্টগ্রাম: পড়ালেখার পাশাপাশি সৃষ্টিশীল কর্মকাণ্ডেও পিছিয়ে নেই তারুণ্যমুখর বিদ্যাপীঠ চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির (সিআইইউ) মেধাবী শিক্ষার্থীরা।  

সুন্দর দেশ, সুস্থ সমাজ গড়ে তোলার প্রত্যয় নিয়ে ক্যাম্পাসে নানান কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে ইউনিভার্সিটির ১৮টি ক্লাব-সংগঠন।

যার সবকটির নেতৃত্বে রয়েছেন এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের উদ্যোমী ছাত্র-ছাত্রীরা। ভালো কিছু করার দায়বদ্ধতা তাড়া করে ফিরছে স্বপ্নবাজদের।  

মানবিকতার পাশে 

ছিন্নমূল মানুষকে একটু উষ্ণতা দিতে সিআইইউর ইংলিশ ক্লাবের সদস্যরা প্রতিবছর শীত এলেই তুলে দিচ্ছেন শীতবস্ত্র। শুধু তাই নয়, অনাথ শিশুদের মুখে হাসি ফোটাতে বই-খাতাসহ শিক্ষার নানান উপকরণও বিতরণ করছে সিআইইউ সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটি। স্বেচ্ছায় রক্তদান, বিপদে বন্ধুর পাশে দাঁড়ানো, নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা, সামাজিক সচেতনতা-সবখানেই রয়েছে এসব ক্লাবের নিরলস তৎপরতা।  

ক্যারিয়ার ভাবনা 

প্রতিযোগিতামূলক চাকরির বাজারে নিজেদের দক্ষতা বাড়ানো নিয়ে ভীষণ চিন্তিত তরুণ-তরুণীরা। সিআইইউ ইনট্রেনসিক ফাইন্যান্স ক্লাব দেশসেরা সফল ব্যক্তিদের গল্প শোনাতে নিয়মিতভাবে আয়োজন করছে ক্যারিয়ার টক। অন্যদিকে ইন্ডিপেন্ডেন্ট মার্কেটিং ক্লাব সিভি রাইটিং, পাবলিক স্পিকিং, প্রেজেন্টেশন নিয়ে আয়োজন করছে দিনব্যাপি কর্মশালার।  

ব্যবহারিক জ্ঞান অর্জনের দিকে গুরুত্ব দিয়ে ক্লাস রুমের বাইরে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন করপোরেট অফিস এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রমের সঙ্গে পরিচয় ঘটাচ্ছে সিআইইউ এইচআরএম সোসাইটি। পাশাপাশি বিজনেস স্টুডেন্টস সোসাইটি এবং সিআইইউ অ্যাকাউন্টিং ক্লাব ছেলে মেয়েদের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে প্রতিমাসে হাতে নিচ্ছে দারুণ সব আয়োজন।  

বিতর্ক চর্চায় বহুদূর

যুক্তির আলোয় হোক সমাজটা। বিতর্ক চর্চা তরুণ নেতৃত্ব বিকাশে বড় অবদান রাখে। আর সেই ভাবনা থেকে ক্যাম্পাসে নিয়মিতভাবে বিতর্ক চর্চা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে স্ল্যাস ডিবেটিং সোসাইটি। শুধু ক্যাম্পাসের গণ্ডিতে নয়, বিতর্ক ভাবনা নিয়ে একাধিক প্রতিযোগিতায় নজর কেড়েছেন সিআইইউর বিতার্কিকরা। পেয়েছেন পুরস্কারও। সর্বশেষ তাদের আয়োজনে আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় বিতর্ক প্রতিযোগিতায় দেখা গেছে দেশসেরা তরুণ বিতার্কিকদের।  

এ ছাড়া সিআইইউর ‘ল সোসাইটি’এবং ‘ডিবেটিং অ্যান্ড মুটিং ক্লাব’ আইন বিষয়ক সময়োপযোগী  নানান বিষয় নিয়ে সেমিনার আয়োজন করছে।   

মুক্তবুদ্ধির চর্চায় এগিয়ে 

সময়টা বড্ড অস্থির। দেশিয় সংস্কৃতির পুরোনো ধারা কালের আবর্তে যেন হারিয়ে যেতে বসেছে আজ। মাটির গান, ফোকসংগীত, পিঠা উৎসব, পহেলা বৈশাখ-সবই একে একে ক্যালেন্ডারের পাতায় ঠাঁই করে নিচ্ছে বিদেশি সংস্কৃতির বদলে।  

সিআইইউর কালচারাল ক্লাবের সদস্যরা তরুণ প্রজন্মকে উন্নত চিন্তা-চেতনায় গড়ে তুলতে ধরে রেখেছে মুক্তবুদ্ধির চর্চা। তাদের পাশাপাশি রচনা প্রতিযোগিতা, সাহিত্য চর্চা, লেখক আড্ডা, কর্মশালা, লেকচার সেশনসহ হরেক রকম উদ্যোগ হাতে নিচ্ছে সিআইইউ ক্রিয়েটিভ রাইটার্স ক্লাব নামের আরেকটি সংগঠন।  

সমানতালে আরও তিন ক্লাব

মডেল ইউনাইটেড নেশন্স ক্লাব মানবাধিকার ইস্যু এবং বৈশ্বিক সমস্যা নিয়ে নিয়মিত টকের আয়োজন করছে। যেখানে আন্তর্জাতিক বিষয়গুলো নিয়ে সমাধানের পথ খোঁজা হয়। এ ছাড়া স্পোর্টস ক্লাবের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা।  

ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ক্লাব ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ক নানান ধরনের প্রতিযোগিতার আয়োজন করে ইতিমধ্যে সুনাম কুড়িয়েছে। এ ক্লাব থেকে রোবট কমপিটিশান, বিজ্ঞান বিষয়ক একাধিক প্রতিযোগিতারও আয়োজন করা হচ্ছে বছরজুড়ে।  

নতুন দিনের প্রত্যাশা 

সিআইইউতে ক্লাব কার্যক্রমের গুরুত্ব তুলে ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির উপাচার্য ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী বলেন, অ্যাকাডেমিক পড়ালেখা কখনই একজন শিক্ষার্থীকে মানবিক মানুষ হয়ে উঠতে সহায়তা করে না। ক্লাস রুমের বাইরে তার মননে চাই সৃজনশীলতা, নৈতিকতা আর বিবেকবোধের জাগরণ। ক্লাব-সংগঠনগুলোর মাধ্যমে সিআইইউর শিক্ষার্থীদের মানবিক মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে কর্তৃপক্ষ বদ্ধপরিকর বলে জানান উপাচার্য।

বাংলাদেশ সময়: ১১০০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২ 
এসি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa