ঢাকা, শনিবার, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

বাল্যবিয়ে বন্ধে হাজির ম্যাজিস্ট্রেট, খাবার গেল এতিমখানায়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ৭, ২০২২
বাল্যবিয়ে বন্ধে হাজির ম্যাজিস্ট্রেট, খাবার গেল এতিমখানায় প্রতীকী ছবি

চট্টগ্রাম: রাঙ্গুনিয়ায় দশম শ্রেণির ছাত্রীর বিয়ের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হন উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি। তাঁর উপস্থিত টের পেয়ে বর ও কনে পক্ষ পালিয়ে যায়।

 পরে বাল্যবিয়ের আয়োজন করায় বর ও কনে পক্ষকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।  

শুক্রবার (৭ অক্টোবর) বেলা আড়াইটার দিকে রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ইছাখালীর নূর জাহান কমিউনিটি সেন্টারে এ বিয়ের আয়োজন করা হয়। সেখানে উপজেলার সরফভাটা স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রীর সঙ্গে সেকান্দর হোসেন নামের ৩০ বছরের যুবকের বিয়ের অনুষ্ঠানের জমজমাট আয়োজন চলছিল।  

এমন সময় বাল্যবিয়ে বন্ধে কমিউনিটি সেন্টারে হাজির ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ জামশেদুল আলম। ম্যাজিস্ট্রেট আসার খবর পেয়ে কমিউনিটি সেন্টার থেকে পালিয়ে যায় বর ও কনে পক্ষ। বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য তৈরি সব খাবার পাঠিয়ে দেওয়া হয় স্থানীয় এতিমখানায়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জামশেদুল আলম বাংলানিউজকে বলেন, রাঙ্গুনিয়ার একটি কমিউনিটি সেন্টারে বাল্যবিয়ের খবর পেয়ে আমরা সেখানে যাই। খবর পেয়ে বর ও কনে পক্ষ পালিয়ে যায়। পরে তাদের বিয়ে বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়।  

তিনি বলেন, দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করে বর ও কনে পক্ষের কাউকে না পেয়ে তাদের হাজির হওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়। পরে তারা আসলে বাল্যবিয়ের আয়োজন করায় ছেলে পক্ষকে ৫০ হাজার ও বর পক্ষকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।  

উভয় পক্ষের পরিবারের লোকজনকে বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে বোঝানো হয়। ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত মেয়ের বিয়ে দেবে না মর্মে মেয়ের বাবা ১ লাখ টাকার বন্ডে লিখিতভাবে অঙ্গীকার করেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩০ ঘণ্টা, অক্টোবর ৭, ২০২২
বিই/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa