ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

কর অঞ্চল-৮ এর সাঁটলিপিকার বাবর আলী বরখাস্ত

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৪৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৮, ২০১৭
কর অঞ্চল-৮ এর সাঁটলিপিকার বাবর আলী বরখাস্ত

ঢাকা: নানা অনিয়ম ও প্রতিষ্ঠান বিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে এনবিআর কর অঞ্চল-৮ এর সাঁটলিপিকার বাবর আলীকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

দীর্ঘদিন ধরে বাবর আলীর বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ পায় এনবিআরের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সেল। অভিযোগের ভিত্তিতে সম্প্রতি বাবর আলীর ব্যবহৃত কম্পিউটার জব্দ করে এর সত্যতা পাওয়া যায়।


 
অভিযোগের সত্যতার ভিত্তিতে সম্প্রতি কর অঞ্চল-৮ এর কমিশনার মোহাম্মদ আবু তাহের চৌধুরী তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেন।   রোববার (০৮ জানুয়ারি) কর অঞ্চল-৮ এর একটি সূত্র বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।
 
সূত্র জানায়, বাবর আলী দীর্ঘদিন ধরে এনবিআরের বিভিন্ন কর্মকর্তার নামে দুদকসহ বিভিন্ন দফতরে তার ব্যবহৃত কম্পিউটার থেকে নামে-বেনামে ভুয়া, মিথ্যা, ভিত্তিহীন চিঠি দিয়ে আসছেন। তাকে বিভিন্ন সময় মৌখিকভাবে সর্তক করা হলেও এ বিষয়ে সংশোধন হয়নি। সম্প্রতি অভিযোগের প্রেক্ষিতে বাবর আলীর ব্যবহৃত কম্পিউটার জব্দ করে সিআইসি। কম্পিউটারে বিভিন্ন কর্মকর্তার নামে ভুয়া অনেক বেনামি চিঠি পাওয়া যায়। তবে বিষয়টি বাবর আলী স্বীকার করেন।
 
অভিযোগের সত্যতার ভিত্তিতে চাকরি শৃঙ্খলার হানিকর আচরণ হিসেবে বিবেচিত হওয়ায় সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপীল) বিধিমালা, ১৯৮৫ এর বিধি-১১ অনুযায়ী তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।
 
সূত্র আরো জানায়, দুনীর্তি, হয়রানি ও স্বেচ্ছাচারিতার বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স নীতি’ গ্রহণ করেছে। এ নীতির আলোকে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করা হচ্ছে।
 
এদিকে দুনীর্তির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় রংপুর কর অঞ্চলের কর কমিশনারসহ তিন কর্মকর্তাকে পদাবনতি (নিম্ন পদে) করা হয়েছে। তিনজন হলেন, রংপুর কর কমিশনার অনিমেষ রায়, অতিরিক্ত কর কমিশনার মো. রিয়াজুল ইসলাম ও উপ কর কমিশনার মোহাম্মদ আমিরুল করিম মুন্সী।
 
এর আগে সর্বোচ্চ করদাতা মনোনয়নে দুনীর্তির অভিযোগে চলতি বছরের ৯ অক্টোবর সহকারী কর কমিশনার সফি-উল-আলম নামে এক কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।
 
এছাড়া  দুর্নীতির অভিযোগে কাস্টমস কমিশনার এম হাফিজুর রহমান, সহকারী কর কমিশনার জাহিদুল ইসলাম, ঢাকা কর পরিদর্শন পরিদফতরের উপ-পরিচালক বিদ্যুৎ নারায়ণ সরকারসহ বেশ কয়েকজন কর্মকর্তাকে চাকরিচ্যুত ও শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।
 
এনবিআর চেয়ারম্যান মো. নজিবুর রহমান বলেন, জিরো টলারেন্স নীতির এনবিআর কর্মকর্তারা রং বদলাতে শুরু করেছেন। এর মাধ্যমে আমরা কঠোর বার্তা দিতে চাই দুর্নীতি, হয়রানির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৮, ২০১৭
আরইউ/বিএস

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa