ঢাকা, সোমবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ মে ২০২২, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

অর্থনীতি-ব্যবসা

ব্যাংক অ্যাকাউন্ট স্থগিতের আগে জানাতে হবে গ্রাহককে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৮, ২০২১
ব্যাংক অ্যাকাউন্ট স্থগিতের আগে জানাতে হবে গ্রাহককে

ঢাকা: যে কোন ধরনের হিসাব অ্যাকাউন্ট স্থগিত (ডরম্যান্ট) হিসেবে চিহ্নিত করার একমাস আগে গ্রাহককে জানাতে হবে। সংশ্লিষ্ট ব্যাংক মুঠোফোনে ক্ষুদে বার্তা, ইমেইল, পত্র যোগাযোগ, ব্যাংকের নিজস্ব রিলেশনশিপ অফিসার বা অন্য যে কোন মাধ্যমে উক্ত হিসাবধারী ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যোগাযোগ করে গ্রাহককে বিষয়টি অবহিত করতে হবে।

দেশে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় করার ক্ষেত্রে একেক ব্যাংক গ্রাহককে একেক ধরনের নির্দেশনা দেওয়ায় বাংলাদেশ ব্যাংক সব ব্যাংককে একই নির্দেশনা পরিপালনের নির্দেশ দিয়ে সার্কুলার জারি করেছে।

মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংক এ বিষয়ে সার্কুলার জারি করে দেশে কার্যরত সব তফসিলি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পাঠিয়েছে। যা অবিলম্বে কার্যকরের নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, সাম্প্রতিক সময়ে লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, বিভিন্ন ব্যাংক স্থগিত (ডরম্যান্ট) হিসাব পরিচালনার ক্ষেত্রে ভিন্ন ভিন্ন নীতিমালা অনুসরণ করছে, যা গ্রাহক পর্যায়ে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করছে এবং গ্রাহকরা নানা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন।

এছাড়াও লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, কতিপয় ব্যাংক স্থগিত হিসাবে সুদ বা মুনাফা দিলেও বিভিন্ন ধরনের চার্জ কাটছে। এসব বিষয় বিবেচনায় স্থগিত হিসাব পরিচালনার ক্ষেত্রে নিম্নবর্ণিত নীতিমালা অনুসরণের জন্য নির্দেশনা দেওয়া হলো- ইসলামিক ব্যাংকসহ সব তফসিলি ব্যাংকের চলতি, শর্ট নোটিশ ডিপোজিট (এসএনডি) এবং সঞ্চয়ী হিসাব যে নামেই অভিহিত করা হোক না কেন সর্বশেষ লেনদেন বা হিসাব বিবরণীর সর্বশেষ প্রাপ্তি স্বীকার বা উক্ত বিবরণীর জন্য সর্বশেষ অনুরোধের তারিখ থেকে অন্যূন ৬ মাস গ্রাহক কোন প্রকার লেনদেন না করলে, সেসব হিসাবকে অপ্রচলিত হিসেবে গণ্য করা হবে। এসব হিসাবকে অপ্রচলিত হিসেবে চিহ্নিত হওয়ার পর নিম্নবর্ণিত সময় অতিক্রান্ত হলে তা স্থগিত হিসাব বলে গণ্য করা হবে।

চলতি হিসাব ও এসএনডি হিসাব অন্যূন ৬ মাস, সঞ্চয়ী হিসাব অন্যূন ১৮ মাস। তবে শর্ত থাকে যে, সরকার, নাবালক এবং আদালতের অর্থ সংক্রান্ত হিসাব ডরম্যান্ট হিসেবে গণ্য হবে না।

সার্কুলারের উদ্দেশ্যপূরণকল্পে, লেনদেন বলতে চেক, গ্রাহকের ডেবিট নির্দেশনা, ডেবিট বা এরূপ কার্ড, ইন্টারনেট ব্যাংকিং বা যে কোন অ্যাপস ব্যবহারের মাধ্যমে হিসাবের লেনদেনকে বুঝাবে। এক্ষেত্রে হিসাবসমূহে প্রদেয় সুদ বা মুনাফা এবং চার্জ ও এক্সাইজ ডিউটি বা ভ্যাট আরোপ করা হলেও তা লেনদেন হিসাবে গণ্য হবে না। স্থগিতকৃত যে কোন চলতি, এসএনডি এবং সঞ্চয়ী হিসাবের উপর প্রযোজ্য সুদ বা মুনাফা গ্রাহকের সঙ্গে চুক্তির শর্তানুযায়ী নির্ধারিত সময়ে উক্ত হিসাবে প্রদান করতে হবে এবং এর উপর প্রযোজ্য চার্জ বা এক্সাইজ ডিউটি বা ভ্যাট নির্ধারিত সময়ে কর্তন করা যাবে। ডরম্যান্টকৃত চলতি, এসএনডি এবং সঞ্চয়ী হিসাব পুনরায় পরিচালনা করার লক্ষ্যে গ্রাহক কর্তৃক শাখা ব্যবস্থাপকের নিকট লিখিতভাবে আবেদন করতে হবে। উক্ত আবেদনে যাচিত চাহিদাকে বিবেচনায় নিয়ে ব্যাংক কর্তৃক স্থগিত হিসাব সক্রিয় বা চালুকরা যাবে। তবে, উক্ত হিসাবটি লেনদেনবিহীনভাবে ৫বছর অতিক্রান্ত হলে পরিচালনার জন্য নতুনভাবে কেওয়াইসি সম্পন্ন করতে হবে। ডরম্যান্ট হিসাব নতুনভাবে চালু করার ক্ষেত্রে কোন চার্জ বা ফি আদায় করা যাবে না।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৮, ২০২১
এসই/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa