ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৬ আগস্ট ২০২২, ১৭ মহররম ১৪৪৪

বিনোদন

অ্যাম্বার হার্ডের নামে কুকুর পাচারের মামলা!

বিনোদন ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৪৫ ঘণ্টা, জুলাই ২, ২০২২
অ্যাম্বার হার্ডের নামে কুকুর পাচারের মামলা! অ্যাম্বার হার্ড

সাবেক স্বামী জনি ডেপের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা হারার পর অনেকটাই লোক চক্ষুর আড়ালে রয়েছেন হলিউড অভিনেত্রী অ্যাম্বার হার্ড। এরমধ্যেই তার নামে অবৈধভাবে এক দেশ থেকে অন্য দেশে কুকুর পাচারের মামলা হয়েছে।

অ্যাম্বারের বিরুদ্ধে আইনি এই অভিযোগ নতুন ঘটনা নয়। কিন্তু সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ান সরকার পুরনো এই মামলার তদন্ত শুরু করেছে। আইন অনুযায়ী, এই মামলায় হারলে অ্যাম্বার হার্ডের ১৪ বছর পর্যন্ত সাজা হতে পারে।  

যুক্তরাষ্ট্রের বিনোদনধর্মী সংবাদ ম্যাগাজিন এন্টারটেইনমেন্ট টুনাইট-এ দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দেশটির সরকারের কৃষি, জল ও পরিবেশ বিভাগের একজন মুখপাত্র বলেন, ২০১৫ সালে অ্যাম্বার হার্ড অবৈধভাবে তার দুটি কুকুরকে এক দেশ থেকে অন্যদেশে নিয়ে যান। তার বিরুদ্ধে করা সেই মামলা পুনরায় খতিয়ে দেখছে সরকার।

সম্প্রতি জনি ডেপের করা মানহানির মামলায় হেরে যান অ্যাম্বার হার্ড। মামলার রায় অনুযায়ী ডেপকে হার্ডের দিতে হবে ১০ মিলিয়ন ডলার। সেই অর্থ মেটাতে যখন হিমশিম খাচ্ছেন অ্যাকোয়াম্যানের এই অভিনেত্রী, এমন সময়ে তার জন্য এলো আরো বড় দুঃসংবাদ।  

২০১৫ সালে অস্ট্রেলিয়ায় প্রাক্তন স্বামী জনি ডেপের ‘পাইরটস অব ক্যারিবিয়ান’র শুটিং চলাকালে অ্যাম্বার তার সফরসঙ্গী হিসেবে সেখানে যান। সঙ্গে তার দুটি পোষা কুকুরও ছিলো। কুকুর দুটিকে অস্ট্রেলিয়া সরকারের বিনা অনুমতিতে সেখানে নিয়ে যাওয়া হয়।  

মামলাটি প্রথমবার যখন উত্থাপিত হয়, সেসময় অ্যাম্বার হার্ড তার দোষ স্বীকার করে নেন। কিন্তু ৭ বছর পর আবারো এই অভিযোগ সামনে আনা হলো।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৫ ঘণ্টা, জুলাই ০২, ২০২২
এনএটি 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa