ঢাকা, বুধবার, ১১ কার্তিক ১৪২৮, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

স্বাস্থ্য

ভ্যাকসিন সুরক্ষায় ১০টি নতুন কোল্ড রুম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩২ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৩
ভ্যাকসিন সুরক্ষায় ১০টি নতুন কোল্ড রুম

ঢাকা: ভ্যাকসিন সুরক্ষায় আরো ১০টি নতুন কোল্ড রুম তৈরি করা হয়েছে।

রোববার দুপুরে নগরীর মহাখালীর স্বাস্থ্য অধিদফতরে সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচি (ইপিআই) ভবনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আ ফ ম রুহুল হক নতুন ১০টি কোল্ড রুমের উদ্বোধন করেন।

Iped

স্বাস্থ্য অধিদফতরে সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচি (ইপিআই) ভবনে কোল্ড প্ল্যান্টে নতুন কোল্ড রুমের এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ইউনিসেফ।

এ নিয়ে কোল্ড প্ল্যান্টের আওতায় কোল্ড রুমের সংখ্যা দাঁড়াল ২২টি। এই কোল্ড রুমগুলোর মোট স্টোরেজ ক্ষমতা ২০৭ দশমিক ৫ কিউবিক মিটার।

কোল্ড প্ল্যান্টের আওতায় নতুন কোল্ড রুমগুলোর স্টোরেজ ক্ষমতা বেড়েছে ৯৭ কিউবিক মিটার। কানাডা সরকার ও ইউনিসেফ এর জন্য অর্থায়ন করে।

Ipedকোল্ড রুম উদ্বোধনের সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী প্রফেসর ডা. আ ফ ম রুহুল হক বলেন, ভ্যাকসিনের অভাবে শিশু মৃত্যুর হার বাড়ে। শিশুদের যেকোনো রোগ নিরাময়ে ভ্যাকসিন অন্যতম নিয়ামক হিসেবে কাজ করে।

ভ্যাকসিন বাইরের দেশ থেকে নিয়ে আসার আগে এগুলো সংরক্ষণের কথা চিন্তা করতে হয়। কানাডা ও ইউনিসেফকে ধন্যবাদ। কারণ, তারা আমাদের আরও ১০টি কোল্ডরুম তৈরি করে দিয়েছে ভ্যাকসিন রাখার জন্য।

২০১৪ সালে বিদেশ থেকে  নিউমোনিয়া নিরাময়ের যে ভ্যাকসিন আসবে তার জন্য কোনো চিন্তা করতে হবে না।

কারণ ২২টি কোল্ডরুমের ভ্যাকসিন ধারণ বা সুরক্ষার জন্য এখন ২০৭ দশমিক ৫ কিউবিক মিটার রয়েছে। Iped

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কানাডিয়ান হাইকমিশনার হিদার ক্রুডেন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এ এম বদরুদোজ্জা, বাংলাদেশে নিযুক্ত ইউনিসেফের প্রতিনিধি প্যাসকেল ভিল্লিনিউভি, বাংলাদেশে নিযুক্ত ওর্য়াল্ড হেলথ অর্গানাইজেশনের (হু) প্রতিনিধি ড. তুষারা ই আই ফার্নানদো প্রমুখ।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৮২৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৩
এমআইএস/এমআইপি/এএসআর/এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa