ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৬ মাঘ ১৪২৯, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৭ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

লাখ টাকা চুরির অপবাদে শিশুকে নির্যাতন 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৩৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৪, ২০২২
লাখ টাকা চুরির অপবাদে শিশুকে নির্যাতন  প্রতীকী ছবি

সাতক্ষীরা: সাতক্ষীরার তালায় টাকা চুরির অপবাদে এক শিশুকে নির্যাতনের ঘটনায় স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ তিন জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে।

শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) রাতে ওই শিশুর পিতা বাদী হয়ে তালা থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার আসামিরা হলেন, তালা উপজেলার তেঁতুলিয়া ইউনিয়নের মদনপুর হাতবাঁশ গ্রামের আফাজউদ্দিন মোড়লের ছেলে ইউপি সদস্য আমিনুর ইসলাম মোড়ল, মাসুদ মোড়ল ও শামীম মোড়ল।

নির্যাতিত শিশুর নাম রমজান আলী (১২)। সে তালা উপজেলার মদনপুর হাতবাঁশ গ্রামের ভ্যানচালক আজহারুল ইসলামের ছেলে ও অভনগর হাফিজিয়া মাদ্রাসারছাত্র।

 শিশু রমজান আলীর বাবা আজহারুল ইসলাম বলেন, ১০ নভেম্বর তেতুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার আমিনুর রহমানের বাড়ি থেকে ১ লাখ টাকা চুরি হয়ে যায়। ঘটনার প্রায় ২০ দিন পর গত ৩০ নভেম্বর আমার ছেলে মাদরাসা থেকে বাড়ি ফিরলে তাকে আটকে টাকা চুরির অপবাদ দেওয়া হয়। মেম্বার আমিনুর, তার ভাই শামীম ও মাসুদ আমার ছেলেকে নির্যাতন করে। নির্যাতনের মাধ্যমে শিশু রমজানকে টাকা নিয়েছে মর্মে স্বীকার করিয়ে নেয়া হয়।

তিনি আরও বলেন, সে সময় স্থানীয়রা গুরুতর আহত ও অচেতন অবস্থায় আমার ছেলেকে উদ্ধার করে তালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। কিন্তু তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তালা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স তাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পাঠায়।

এবিষয়ে ইউপি সদস্য আমিনুর রহমান বলেন, টাকাটা ও নিয়েছে। সেটি স্বীকার করানোর জন্য টুকটাক মারপিট করা হয়েছে। তবে গুরুতর আহত হওয়ার মতো মারপিট করা হয়নি।

তালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চৌধুরী রেজাউল করিম বলেন, এ ঘটনায় তালা থানায় আহত শিশুর পিতা বাদী হয়ে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। আসামিদের গ্রেফতারের ধরার চেষ্টা চলছে।

বাংলাদেশ সময় : ১০৩০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৪,২০২২
এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa