ঢাকা, বুধবার, ৩ বৈশাখ ১৪৩১, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৭ শাওয়াল ১৪৪৫

জাতীয়

চাঁদপুরে ব্যাংকের ছাদে মিলল নৈশপ্রহরীর হাত-পা বাঁধা মরদেহ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৪৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২৪
চাঁদপুরে ব্যাংকের ছাদে মিলল নৈশপ্রহরীর হাত-পা বাঁধা মরদেহ

চাঁদপুর: চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার কৃষি ব্যাংকের ছাদ থেকে হাত-পা বাঁধা শাহাদাত হোসেন সাজ্জাদ (২০) নামে এক নৈশ প্রহরীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ব্যাংক ভবনের ছাদ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে মতলব উত্তর থানা পুলিশ।

এর আগে সকালে উপজেলার গজরা ইউনিয়নের গজরা এলাকার কৃষি ব্যাংকের ছাদের পিলারের সঙ্গে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় সাজ্জাদের মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশ খবর দেয় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ।

শাহাদাত গজরা ইউনিয়নের গজরা গ্রামের প্রধানিয়া বাড়ির ছামাদ প্রধানিয়ার ছেলে। দুই মাস আগে কৃষি ব্যাংক গজরা বাজার শাখায় নৈশ প্রহরী হিসেবে কাজে যোগদান করেন তিনি।

শাহাদাতের ফুফু রহিমা বেগম ওই ব্যাংকে রান্না-বান্নার কাজ করতেন। তিনি জানান, রাতের কাজ শেষে বাড়ি না ফেরার খবর পেয়ে খুঁজতে থাকে তার পরিবারের লোকজন। পরে ব্যাংকের ছাদে তাকে হাত-পা বাঁধা দেখতে পাই।

মা শিরিন বেগম জানান, দুই মাস হলো ব্যাংকে চাকরি করছে। মাত্র এক মাসের বেতন পেয়েছে। প্রতিদিন বিকেলে বাড়ি থেকে ব্যাংকে আসে, সকালে বাড়ি ফিরে। সকাল ৮টায় বাড়িতে না যাওয়ায় আমি নিজে ব্যাংকে আসি। এসে দেখি ব্যাংকের সব দরজা তালা বদ্ধ। পরে চলে যাই। মনে করেছি কোনো দোকানে নাস্তা খেতে গেছে হয়ত। আমার ছেলের কোনো শত্রু নেই। ছেলে হত্যার বিচার দাবি করে তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন।

কৃষি ব্যাংকের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শিমুল এই হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া কোনো কথা বলতে পারবেন না বলে জানান।

এদিকে হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মতলব সার্কেল) খায়রুল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শহীদ হোসেন জানান, তদন্ত কাজ চলছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। মরদেহ উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২৪
এসএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।