ঢাকা, শুক্রবার, ৮ আষাঢ় ১৪৩১, ২১ জুন ২০২৪, ১৩ জিলহজ ১৪৪৫

জাতীয়

সমুদ্র নিরাপত্তায় সহযোগিতা দিতে চায় অস্ট্রেলিয়া 

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২১ ঘণ্টা, মে ২১, ২০২৪
সমুদ্র নিরাপত্তায় সহযোগিতা দিতে চায় অস্ট্রেলিয়া 

ঢাকা: অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী পেনি ওং জানিয়েছেন, সমুদ্র নিরাপত্তা ও চোরাচালান প্রতিরোধে বাংলাদেশের সঙ্গে সহযোগিতা জোরদার করতে চায় অস্ট্রেলিয়া। সমুদ্র খাতে কোনো দেশই এসব চ্যালেঞ্জ এককভাবে মোকাবিলা করতে পারে না।

আমরা এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় একযোগে কাজ করতে আগ্রহী।

মঙ্গলবার (২১ মে) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় যৌথ প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে বৈঠক করেন অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী পেনি ওং। বৈঠক শেষে যৌথ প্রেস ব্রিফিংয়ে বক্তব্য রাখেন উভয় মন্ত্রী।

যৌথ প্রেস ব্রিফিংয়ে অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী পেনি ওং এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন, রোহিঙ্গাদের মানবিক সংকটের আমরা সমাধান প্রত্যাশা করি। আমি মনে করি, আপনাদের সরকার যা চায় আমরাও চাই, তা হলো মিয়ানমারের সংঘাতের সমাধান হোক। কেননা রোহিঙ্গারা যেন তাদের প্রত্যাবাসনের আকাঙ্ক্ষা উপলব্ধি করতে পারে।

অস্ট্রেলিয়ার মন্ত্রী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন প্রভাব মোকাবিলায় আমরা যৌথভাবে কাজ করছি। এখানে পারস্পরিক অংশীদারত্ব এবং সহযোগিতাও প্রয়োজন।

তিনি বলেন, অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশি প্রবাসীরা গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার। তারা উভয় দেশের জন্যই অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখছে।

যৌথ ব্রিফিংয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য অস্ট্রেলিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়েছি। এছাড়া কর্মীদের দক্ষতা উন্নয়নে সহযোগিতা চেয়েছি। আমরা অস্ট্রেলিয়ায় দক্ষ অভিবাসী পাঠাতে চাই। বৈঠকে মানবপাচার প্রতিরোধ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এই খাতে আমরা একযোগে কাজ করবো বলে জানিয়েছি।

উল্লেখ্য, অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী পেনি ওং আজ দুই দিনের সফরে ঢাকায় এসেছেন।  

বাংলাদেশ সময়: ২০২১ ঘণ্টা, মে ২১,২০২৪
টিআর/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।